আমাজন এফিলিয়েট মার্কেটিং কিভাবে করবেন – 2022

অনেকে জানতে চেয়েছেন, আমাজন এফিলিয়েট মার্কেটিং কি? (What is Amazon affiliate marketing) এবং কিভাবে আমাজন এফিলিয়েট মার্কেটিং করে টাকা আয় করবেন সেই ব্যাপারে।

বর্তমানে এফিলিয়েট মার্কেটিং করে অনলাইনে টাকা আয় করার প্রচুর সম্ভবনা রয়েছে, এই ব্যাপারে আমরা প্রায় সবাই জানি। সারা বিশ্বের মানুষা ঘরে বসে affiliate marketing করে প্রচুর পরিমানে টাকা আয় করছে।

আর আপনারা যখন এফিলিয়েট মার্কেটিং করে টাকা আয় করার চিন্তা করবেন, তখন Amazon affiliate marketing program হলো আপনার সব চেয়ে জনপ্রিয় এবং লাভজনক একটি সেবা। এই Amazon affiliate marketing সেবা টিকে বলা হয় amazon associates program.

এখন আপন যদি আমাজন থেকে টাকা ইনকাম করার কথা ভাবছেন, তাহালে মনোযোগ দিয়ে সম্পর্ন আর্টিকেলটি পড়ুন। কারণ, আমাজন থেকে কিভাবে আয় করা যায় সেই প্রশ্নের উত্তর নিচে বলে দিয়েছি।

আমাজন এফিলিয়েট মার্কেটিং কি?

এর আগে আমি এই ব্লগে আপনাদের বলেছি যে, এফিলিয়েট মার্কেটিং কি সেই ব্যাপারে। আসলে affiliate marketing হলো এমন একটি প্রক্রিয়া যেখানে আপনি অন্যান্য কোম্পানির, দোকানের পন্য বা কোনো ব্যাক্তির সার্ভিসকে প্রচার করে বিক্রিয় করতে সাহায্য করা।

আপনার মাধ্যমে যদি সেই কোম্পনির বা ব্যাক্তির পণ্য বিক্রিয় হয়, তাহালে সেই বিক্রয় করা পন্যের মূল্য থেকে নিদিষ্ট পরিমানে কিছু টাকা আপনারে কমিশন হিসাবে দেওয়া হবে।

অন্যের পণ্যকে নিজের কোনো প্লাটফার্ম এর মাধ্যমে বিক্রিয় করা এবং সেই বিক্রয় করা থেকে কিছু টাকা কমিশন করে ইনকাম করাকে বলা হয় affiliate marketing business model. Amazon তাদের প্রডাক্ট গুলোকে দ্রুত মানুষের কাছে বিক্রয় করানোর জন্য amazon associates program চালু করেন।

এটার মাধ্যমে যেকোনো ব্যাক্তি নিজের একটি affiliate account তৈরি করে আমাজন এর প্রডাক্ট গুলোকে বিক্রিয় করতে পারবেন। আর প্রডাক্ট গুলো বিক্রিয় করার জন্য আপনাকে বিশেষ একটি referral link দেওয়া হবে।

এই referral link এর মাধ্যমে আপনাকে products গুলো বিক্রি করতে হবে এবং সেটার বিপরীতে আপনাকে কমিশন দেওয়া হবে। এই প্রক্রিয়া ব্যবহার করে প্রচুর মানুষরা আমাজন থেকে টাকা আয় করছে।

Amazon e-commerce website কি?

আমাজন হলো একটি জনপ্রিয় e-commerce website যেখানে আপনারা হাজার হাজার প্রডাক্ট পাবেন। এই সকল প্রডাক্ট গুলোর মধ্যে থেকে যখন আপনি প্রডাক্ট অর্ডার করবেন তখন amazon এর তরফ থেকে সেই প্রডাক্ট আপনার ঘরে পৌঁছায়ে যাবে।

বিশ্বের বিভিন্ন দেশে amazon তাদের ই-কমার্স ওয়েবসাইটের মাধ্যমে ব্যবসা করছে। আর বর্তমানে amazon এতোটা জনপ্রিয় হয়েছে যে মানুষরা বিশ্বাসের সাথে কেনাকাটা করছে।

Amazon এর প্রডাক্ট গুলো আপনি অফলাইন মার্কেট থেকে যে দামে ক্রয় করবেন তার চেয়ে কম দামে amazon থেকে কিনতে পারবেন। এবং তাদের প্রডাক্ট এর কোয়ালাটির অনেক ভালো।

তাছাড়া, যে পণ্য গুলো আপনি বাহিরে মার্কেটপ্লেসে খুঁজে পাবেন না, সেগুলো অনেক সহজে amazon এ পেয়ে যাবেন। এই সব দিক থেকে amazon এর চাহিদা এবং জনপ্রিয়তা দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে।

আমাজন এফিলিয়েট মার্কেটিং এর সুবিধা গুলো কি?

আপনি যদি অনলাইনে এফিলিয়েট মার্কেটিং করে টাকা আয় করতে চান, তাহালে অনলাইনে বিভিন্ন ধরনের ই-কমার্স কোম্পানি রয়েছে যেগুলোর মাধ্যমে তাদের প্রডাক্ট বিক্রিয় করে ভালো পরিমানে কমিশন থেকে আয় করতে পারবেন।

তবে, আমাজন এফিলিয়েট মার্কেটিং এর বিশেষ কিছু লাভ ও সুবিধা রয়েছে। যে কারণে অধিক পরিমানে মানুষরা এফিলিয়েট মার্কেটিং করার জন্য তাদের প্রডাক্ট বা পণ্য বিক্রিয় করে থাকেন বা আমাজন এর সাথে যুক্ত হয়ে থাকেন।

তাহালে, চলুন নিচে থেকে জেনে আসি Amazon affiliate marketing এর সুবিধা গুলো কি কি?

#প্রডাক্ট প্রোমোট করে আয়

আপনি amazon website এ যেকোনো ধরনের পণ্য পেয়ে যাবেন, যেগুলো অফলাইন মার্কেটে খুঁজে পাওয়া অনেক কঠিন হয়ে যাবে। এখানে অনেক দামের পণ্য থেকে শুরু করে কম দামের এবং ব্র্যান্ড ও নন-ব্র্যান্ডের প্রোডাক্ট গুলো পাবেন।

তাই, আপনি যদি Amazon affiliate marketing করার কথা চিন্তা করেন, তাহালে আপনার কাছে প্রচুর পরিমানে আলদা আলদা প্রোডাক্ট গুলো প্রোমোট করার সুযোগ থাকবে। আপনার নিজের ইচ্ছা মতো প্রোডাক্ট ক্যাটাগরি গুলো বাছাই করতে পারবেন।

#Amazon একটি জনপ্রিয় কোম্পানি

আপনারা অবশ্যই জানেন, আমাজন একটি জনপ্রিয় এবং বিখ্যাত ই-কমার্স কোম্পানি। যেখান থেকে প্রতিদিন হাজার হাজার মানুষারা বিশ্বাসের সাথে অনলাইন শপিং করছে। এক্ষেত্রে আপনি কোনো রকম ভয় ছাড়া পণ্য গুলো প্রচার বা মার্কেটিং করতে পারবেন।

আমাজন যেহেতু অনেক পরিচিত কোম্পানি, সেহেতু মানুষরা অনেক সহজে শপিং করবেন। কিন্ত আপনি যদি একটি অচেনা কোম্পনির পণ্য প্রচার করেন, তাহালে সেখান থেকে মানুষরা শপিং করতে অনেক বার ভাববে।

#সহজে শুরু করতে পারবেন

Amazon associates program এর মাধ্যমে আপনি অনেক সহজে এদের সাথে সংযুক্ত হয়ে affiliate marketing শুরু করতে পারবেন। এর জন্য আপনার প্রয়োজন হবে একটি “Email id, phone number, bank account”.

আপনি অনেক সহজে কয়েক মিনিটের মধ্যে amazon associates account তৈরি করতে পারবেন। এই সকল কাজ গুলো আপনি সম্পর্ন ফ্রিতে করতে পারবেন এবং এর জন্য আপনাকে কোনো প্রকার টাকা amazon কে দিতে হবে না।

#সীমাহীন অনলাইন আয়

Amazon থেকে আপনি যত বেশি পরিমানে পণ্য বিক্রি করতে পারবেন ততটাই বেশি কমিশনের মাধ্যমে টাকা আয় করতে পারবেন। তবে, এর জন্য অবশ্যই আপনাকে ভালো একটি ট্রাফিক সোর্স (traffic source) থাকতে হবে।

আপনার প্রচার করা পণ্যের এফিলিয়েট লিংক যত বেশি মানুষের কাছে শেয়ার করতে পারবেন, ততটাই বেশি পণ্য বিক্রিয়ের সুযোগ থাকবে। অনেকে আছেন যারা ঘরে বসে আমাজনের পণ্য প্রচার বা মার্কেটিং করে মাসে লক্ষ লক্ষ টাকা আয় করছে।

আপনি যদি এই বিষয়ে আরো বিস্তরিত ভাবে জানতে চান তাহালে ইন্টারনেটে সার্চ করলে জানতে পারবেন। সঠিক বিষয় বুঝে সঠিক ভাবে কাজ করলে আপনি আনলিমিটেড টাকা আয় করতে পারবেন।

#সম্পর্ন ঘরোয়া ব্যবসা

আমাজন এফিলিয়েট মার্কেটিং এর ব্যবসা সম্পর্ন ঘরোয়া ব্যবসা, যেটা আপনি ঘরে বসে একটি কম্পিউটার বা ল্যাপটপ এর মাধ্যমে করতে পারবেন। এক্ষেত্রে আপনাকে কেবল ভালো ভালো প্রোডাক্ট গুলোকে সিলেক্ট করতে হবে।

এবং অনলাইন প্লাটফার্ম গুলোর মাধ্যমে মানুষের কাছে মার্কেটিং বা প্রচার করতে হবে। মনে রাখবেন, এই ব্যবসার মাধ্যমে মানুষা ঘরে বসে লক্ষ লক্ষ টাকা ইনকাম করছে।

আমাজন প্রোডাক্ট গুলো কিভাবে অনলাইনে প্রচার করবেন?

আমাজন প্রোডাক্ট গুলো বিক্রিয় করার জন্য আপনাকে সর্বপ্রথম একটি অনলাইন প্লাটফার্ম তৈরি করতে হবে। যেখানে প্রচুর পরিমানে ট্রাফিক, ভিজিটর্স, সাবস্ক্রইবার থাকতে হবে।

যেমন, আমার এই ব্লগে প্রতিদিন প্রচুর পরিমানে ভিজিটর্স গুগল সার্চ থেকে আসে। তাই, আমি চাইলে ভিজিটরদের লোকেশন (location) এর উপর ভিত্তি করে যেকোনো প্রোডাক্ট এর প্রচার বা মার্কেটিং করতে পারি।

কারণ, এমন অনেকে আছেন যারা প্রোমোট করা পছন্দ করেন এবং তারা সেই পণ্যটি কিনে নিতে পারেন। এভাবে আপনি amazon এর products গুলো online platform এর মাধ্যমে প্রচার করতে পারবেন।

আপনি নিচের প্লাটফার্ম গুলো ব্যবহার করে পণ্য প্রচার বা মার্কেটিং করতে পারেন,

  • ব্লগ পোষ্টে আর্টিকেল লিখে
  • ইউটিউব চ্যানেল তৈরি করে
  • সোশ্যাল মিডিয়া পেজ তৈরি করে
  • ইমেইল মার্কেটিং করে

Amazon affiliate program এ কিভাবে Join করবেন?

আমি আগেই বলেছি মাএ কয়েক মিনিটের মধ্যে সম্পর্ন ফ্রিতে Amazon affiliate program join করতে পারবেন। এর জন্য আপনাকে https://affiliate-program.amazon.com/ ওয়েবসাইটে গিয়ে signup করতে হবে।

signup করতে আপনার প্রয়োজন হবে ইমেইল আইডি, মোবাইল নম্বার এবং ঠিকানা। এছাড়া, আপনার যদি কোনো ওয়েবসাইট বা সোশ্যাল মিডিয়া প্লাটফার্ম থাকে সেগুলোর লিংক দিতে হবে।

এর পরে আপনাকে online website / app এর তথ্য গুলো দেওয়ার জন্য বলা হবে। সঠিক ভাবে signup করার পরে আমাজন এর তরফ থেকে আপনাকে একটি associate id দেওয়া হবে।

এবার ড্যাশবোড থেকে নিজর ব্যাংক একাউন্ট নম্বার দিবেন পেমেন্ট গ্রহন করার জন্য। এবার আপনি amazon থেকে যেকোনো products সিলেক্ট করে affiliate link তৈরি করে নিজের অনলাইন প্লাটফার্মে সেগুলো কে মার্কেটিং বা প্রচার করতে পারবেন।

আজকে আমরা কি শিখলাম

তাহালে, বন্ধুরা আজকে আমরা জানলাম আমাজন এফিলিয়েট মার্কেটিং এর ব্যাপারে। আমার লেখা Amazon affiliate marketing আর্টিকেলটি কেমন লাগলো অবশ্যই কমেন্টে জানাবেন, এবং এই আর্টিকেল সম্পর্কে কোনো পরামর্শ থাকলে অবশ্যই জানাবেন।

7 thoughts on “আমাজন এফিলিয়েট মার্কেটিং কিভাবে করবেন – 2022”

  1. চমৎকার লিখেছেন
    আপনার মোবাইল নাম্বারটা দিন
    আমার নম্বর – 01700521807

    Reply

Leave a Comment

Share via
Copy link
Powered by Social Snap