ইন্টারনেট আবিষ্কার করেন কে? এবং এর ইতিহাস

0
42
ইন্টারনেট আবিষ্কার করেন কে? (who invented the internet)
ইন্টারনেট আবিষ্কার করেন কে? (who invented the internet)

বন্ধুরা আমরা সকলে internet ব্যবহার করলেও আমাদের মধ্যে অনেকে জানেন না ইন্টারনেট আবিষ্কার করেন কে বা কত সালে ইন্টারনেট আবিস্কার হয় এবং ইন্টারনেট এর ইতিহাস সম্পর্কে। (who invented the internet)

আপনারা যদি একটু লক্ষ্য করেন তাহালে হয়তো বুঝতে পারবেন ইন্টারনেট আবিস্কার সারা বিশ্বের গুরুত্বপূর্ণ আবিষ্কার গুলোর মধ্যে সব থেকে সেরা আবিষ্কার এর মধ্যে পড়ে।

কারণ, বর্তমান সময় সরকারি কাজ কর্ম থেকে শুরু করে পড়াশোনা এবং আমরা প্রত্যেক জন লোক কোনো না কোনো ভাবে ইন্টারনেটের সাথে যুক্ত রয়েছে।

আমরা প্রায় সবাই ইন্টারনেটের উপর নির্ভরশীল। মাত্র কয়েক মিনিট যদি ইন্টারনেট বন্ধ করে দেওয়া হয় তাহালে লাখ লাখ কোটি কোটি টাকা লোকসান হয়ে যাবে।

ইন্টারনেট এর আবিস্কার করার প্রধান উদ্দেশ্যে ছিলো এমন একটি টেকনোলজি তৈরি করে যার মাধ্যমে তথ্য আদান প্রদান করা যায়।

আবার বলা যায়, আমরা ইন্টারনেটের মাধ্যমে প্রায় যেকোনো তথ্য সংগ্রহ করতে পারি আবার নিজের জানা তথ্য গুলো এর মাধ্যমে অন্যদের সাথে শেয়ার করতে পারি।

যেহেতু ইন্টারনেটের মাধ্যমে বিশ্বের লাখ লাখ কম্পিউটার একে অপরের সাথে সংযুক্ত আছে। তাই এর মাধ্যমে লাখ লাখ মানুষ পরস্পরের সাথে সংযুক্ত থাকতে পারছে এবং নিজেদের মধ্যে তথ্যের আদান প্রদান করতে পারছে।

বর্তমান সময়ের প্রত্যেক কম্পিউটার গুলো ইন্টারনেটের সাথে সংযুক্ত আছে, তাই বলা যায় বর্তমান সময়ের প্রত্যেক জন লোক ইন্টারনেটের মাধ্যমে পরস্পর সংযুক্ত হয়ে রয়েছে।

আসলে internet হলো বিশ্বের এমন একটি প্রযুক্তি (technology) যার মাধ্যমে আমরা প্রত্যেক ব্যাক্তি একে অপরের সাথে পরস্পর সংযুক্ত আছি।

তাহালে, চলুন নিচে থেকে জেনে আসি ইন্টারনেট কে আবিষ্কার করেন এবং কত সালে ইন্টারনেট আবিস্কার করা হয়

ইন্টারনেট আবিষ্কার করেন কে? (who invented the internet)

ইন্টারনেট আবিষ্কার কে বা কখন করেন এই প্রশ্নের উত্তর দেওয়া সহজ কাজ না। কারণ internet এমন কোনো ছোট বিষয় না যেটা হঠাৎ করে আবিস্কার করা যাবে।

আমরা বর্তমানে যে ইন্টারনেট ব্যবহার করি এটা আবিস্কার করার কৃতিত্ব দেওয়া হয় দুই জন ব্যাক্তি 

Vinton Cerf এবং Bob kahn কে। ইন্টারনেট বর্তমান পুনরাবৃত্তির আগে কম্পিউটারের মধ্যে long distance networking প্রথম বার সম্পর্ন হয় ১৯৬৯ সালে।

এটা প্রথম experiment করা হয়েছিলো UCLA ও Stanford এর দুটি রিসার্চ টিমের দ্বারা। তারা প্রথমে পাশের কম্পিউটারের মধ্যে লগইন করার যে প্রাথামিক চেষ্টা করেন সেটা অসফল হয়ে যান।

এর পরে leonard Kleinrock এর গবেষকরা প্রথমে toe node network তৈরি করতে সফল হয়। এই পরিক্ষার সাথে প্রথম packet switching প্রক্রিয়া টেস্ট করা হয় এবং এই প্রক্রিয়ার মধ্যে ডাটা আদান প্রদান করা সম্ভব হলো।

packet switching এর মাধ্যমে তথ্য গুলো ছোট ছোট ডাটার প্যাকেট হিসাবে আলদা করে নেওয়া হয় এবং পরে সেগুলোকে বিভিন্ন চ্যানেল জুড়ে পরিবহন করা হয় এবং শেষে তথ্য গুলো পুনরায় একসাথে করা যায়। 

এখনো কিন্তু packet switching ডাটার ট্রান্সফারের ভিত্তি হয়ে রয়েছে। Vinton Cerf এবং Bob kahn এর দ্বারা ১৯৮০ সালে packet switching এর মাধ্যমে ডাটা প্রেরণ করার ক্ষেত্রে দুইটা নির্দেশিকা বিকাশ করা হলো।

এই নির্দেশিকা দুইটা হলো CTP/IP বা Transmission Control Protocol এবং Internet Protocol হিসাবে জানি।

Protocol এর PCT এর কাজ হলো ডাটা গুলোকে নেটওয়ার্ক এর মধ্যে দিয়ে প্রেরণ করা বা পরিবহন হওয়ার আগে packing করা এবং পৌঁছানোর সাথে সাথে সেগুলোকে unpacked করা হয়।

এবং IP উপাদানটি ভ্রমণ সমন্বয়কারী হিসাবে কাজ করে যার মূল কাজ হলো তথ্য গুলোকে শুরু বিন্দু থেকে শেষ বিন্দু পর্যন্ত সঠিক পথে নিয়ে যাওয়া।

kleinrock এর experiment থেকে প্রমাণীত হয় যে দুই কম্পিউটারের মধ্যে একটি সিঙ্গেল নেটওয়ার্ক তৈরি হওয়া সম্ভব।

তবে, Vinton Cerf এবং Bob kahn এর TCP/IP করে থাকে এটা একটি দক্ষ এবং বড় তবে পরস্পর সংযুক্ত থাকা নেটওয়ার্ক গুলোর ওয়েব এর মূল আঁধার। আর এভাবে নাম হয় ইন্টারনেট।

ইন্টারনেট এর ইতিহাস (History of internet)

১৯৬০ সালে ইন্টারনেট শুরু হয় সরকারি গবেষকদের জন্য। তারা তাদের মধ্যে তথ আদান প্রদান করার জন্য এই প্রযুক্তি ব্যবহার করতেন।

তবে, ১৯৮৩ সালের ১ লা জানুয়ারি ইন্টারনেটের অফিসিয়াল জন্ম দিন হিসাবে বিবেচিত হয়ে থাকে। কারণ, এর আগের কম্পিউটার গুলোর মধ্যে পরস্পর যোগাযোগ করার জন্য এর থেকে ভালো কোনো উপায় ছিলো না।

যখন থেকে Transmission Control Protocol এবং Internet Protocol নামে নতুন communication proton প্রতিষ্ঠিত করা হলো, তখন এর মাধ্যমে আলদা আলদা নেটওয়ার্ক এর মধ্যে থাকা কম্পিউটার গুলো পরস্পরের সাথে সংযুক্ত হতে পারলো।

এর পরে ১৯৮৯ সালে berners-lee এর দ্বারা world wide web (www) এর খোঁজ করা হয়। আর এখন আমরা সেই প্লাটফর্মটি ব্যবহার করছি ইন্টারনেট এর ক্ষেত্রে। world wide web কে সরাসরি web ও বলা হয়।

এটা হলো ইন্টারনেট এর একটি information system যার মাধ্যমে ডকুমেন্টস এবং অন্যান্য web resources গুলোকে uniform resource locution এর সাহায্যে খুঁজে বের করা হয়।

এই documents এবং web resources গুলোকে মূলত hyperlink এর মাধ্যমে পরস্পরের সাথে সংযুক্ত রাখা হয় এবং যেগুলোকে ইন্টারনেটের মাধ্যমে খুঁজে পাওয়া সম্ভব।

আমরা বর্তমানে যে ইন্টারনেট ব্যবহার করছি সেটার শুরুটা এভাবে হয়েছিলো। আশাকরি, ইন্টারনেট এর ইতিহাস সম্পর্কে জানতে পারছেন।

আজকে আমরা কি জানলাম

তাহালে, আজকে আমরা জানলাম ইন্টারনেট আবিষ্কার করেন কে এবং ইন্টারনেট এর ইতিহাস সম্পর্কে। আশাকরি আমার লেখাটি আপনাদের কাছে ভালো লাগছে।

এই আর্টিকেলটি যদি ভালো লাগে তাহালে কমেন্টে অবশ্যই জানাবেন এবং শেয়ার করতে ভুলবেন না।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে