কম দামে ভালো ফোন 2022

বন্ধুরা আজকে আলোচনা করবো কম দামে ভালো ফোন 2022 বাংলাদেশ নিয়ে। আমাদের দেশের বাজারে অনেক মোবাইল কোম্পানি রয়েছে যারা কম দামে অনেক ভালো ভালো ফোন বাজারে এনেছে।

তাছাড়া, প্রযুক্তির উন্নতির সাথে সাথে ফোনের দাম ও কমে যাচ্ছে। বিভিন্ন মোবাইল কোম্পানি বাংলাদেশে সকল ধরনের গ্রহকদের কথা চিন্তা করে কম বাজেটের নিত্যনতুন ফোন নিয়ে আসতেছে।

যদিও কম দামের ফোন গুলোতে খুব বেশি স্পেসিফিকেশন আশা করা যায় না। তবুও কম দামের মোবাইল ফোন গুলোতে বর্তমানে অনেক ধরনের নতুন স্পেসিফিকেশন যুক্ত করা হচ্ছে।

আপনি যদি এখান থেকে কিছু দিন আগের কথা চিন্তা করেন, তাহলে বুঝতে পারবেন আগের তুলনায় বর্তমান সময়ের ফোন গুলোতে অনেক বেশি সংখ্যাক স্পেসিফিকেশন যুক্ত হচ্ছে।

বর্তমানে আমাদের বাংলাদেশে কম দামে ভালো ফোন 2022 সারে দশ হাজার টাকা থেকে পনেরো হাজার টাকার মধ্যে পাওয়া যাচ্ছে। যদিও এই ফোন গুলো একটু কম দামের কিন্ত এর ব্যাটারি, ক্যামেরা, প্রসেসর অনেক ভালো মানের।

বাংলাদেশে কম বাজেটের ফোন গুলো নিয়ে আসা কোম্পানি গুলোর মধ্যে techno, symphony, oppo, infinix, itel, walton, realme, vivo, samsung, xiaomi ইত্যাদি।

এই কোম্পানি গুলো বাজারে নিত্যনতুন ফিচারস এর সাথে সাথে নতুন নতুন কম দামে ভালো মোবাইল লঞ্চ করছে। এরকম কিছু ফোন নিয়ে আজকে আলোচনা করবো।

কম দামে ভালো ফোন 2022

দিন দিন প্রযুক্তি যতটা উন্নতি হচ্ছে ততই সকল পণ্য আমাদের হাতের নাগালে চলে আসতেছে। এরই ধারাবাহিকতায় কম দামে পাওয়া যাচ্ছে আকর্ষনীয় সব ফোন গুলো।

বর্তমানে প্রতিযোগীতা বৃদ্ধি পাচ্ছে স্মার্টফোন কোম্পানি গুলোর মধ্যে। এর ফলস্বরূপ তারা বাজারে “কম দামে ভালো ফোন” বাজারে লঞ্চ করছে এবং এগুলো থেকে বেশি উপকৃত হচ্ছে সাধারণ ক্রেতাগণ।

বর্তমান সময়ে আপনি কম দামে ভালো ফোন 2022 বাংলাদেশ এর মার্কেট গুলোতে পেয়ে যাবেন। এই সব ভ্যালু ফর মানি ফোন গুলোতে ধারুন সব স্পেসিফিকেশন পেয়ে যাবেন।

কম দামে ভালো ফোন 2022 বাংলাদেশ | কম দামে সেরা ফোন

আজকে আমি কম দামে ফোন গুলো বলতে সেই সব ফোন গুলো নিয়ে আলোচনা করবো যাদের মূল্য ১০,০০০ টাকা থেকে ১৫,০০০ টাকার মধ্যে দাম পড়বে। তাই আপনি যদি এই দামের মধ্যে ভালো ফোন কিনতে চান তাহলে এই আর্টিকেলটি আপনার জন্য।

তাহলে চলুন নিচে থেকে আমরা জেনে আসি কম দামে বাজারের ভালো ফোন গুলোর সম্পর্কে।

(১) Walton Primo RX 7 Mini

আপনার বাজেট যদি ১০ হাজার টাকা মধ্যে হয় এবং দেশিয় ব্র্যান্ডের মধ্যে নিতে চান তাহলে Walton Primo RX 7 Mini ফোনটি হবে আপনার জন্য সেরা ফোন।

ওয়ালটন প্রিমো আরএক্স ৭ মিনি ফোনের অন্যতম আকর্ষন হলো এর প্রসেসর, মিডিয়াটেক হেলিও পি৬০। এতো কম দামের ফোন গুলোর মধ্যে এতো শক্তিশালী প্রসেসর আগে দেখা যায়নি।

তাছাড়া, যারা গেম খেলতে ভালোবাসে তারা এই ফোনটি কম দামে কিনে বেশ ভালো গেমিং করতে পারবেন।

এক নজরে ওয়ালটন প্রিমো আরএক্স ৭ মিনি এর স্পেসিফিকেশন গুলো দেখে আসি –

  • ডিসপ্লে – ৬.১ ইঞ্চি 
  • প্রসেসর – মিডিয়াটেক হেলিও পি৬০
  • স্টোরেজ – ৩২ জিবি
  • র‍্যাম – ৩ জিবি
  • মেইন ক্যামেরা – ১৩ মেগাপিক্সেল
  • ফন্ট ক্যামেরা – ৫ মেগাপিক্সেল
  • ব্যাটারি – ৩০০০ এম পি এয়ার
  • মূল্য – ৯,৪৯৯ টাকা।

(২) Walton Primo GH 10

কম বাজেটের মধ্যে যারা ভালো ফোন কিনতে চান তারা Walton Primo GH 10 ফোনটি কিনতে পারেন। এই ফোনে অ্যান্ড্রয়েড ১১ অপারেটিং ব্যবহার করার পাশাপাশি ১.৮ গিগাহার্জ কোয়াড় প্রসেসর ব্যবহার করা হয়েছে। 

ফোনের রিয়াল ক্যামেরা ব্যবহার করা হয়েছে ৩টি। যেখানে ৮ মেগাপিক্সেল, ০.৩ মেগাপিক্সেল, ০.৩ মেগাপিক্সেল এবং ফন্ট ক্যামেরা ৫ মেগাপিক্সেল ব্যবহার করা হয়েছে। 

এছাড়া ৬.৫ ইঞ্চি ডিসপ্লে এর সাথে ৪০০০ mah ব্যাটারি চার্জ দেওয়ার জন্য থাকছে ফাস্ট চার্জার।লক সিকিউরিটি হিসেবে পাচ্ছেন ফিঙ্গারপ্রিন্ট।

এক নজরে ওয়ালটন প্রিমো জিএইচ ১০ এর স্পেসিফিকেশন গুলো দেখে আসি –

  • ডিসপ্লে – ৬.৫ ইঞ্চি 
  • প্রসেসর – ১.৮
  • স্টোরেজ – ৩২ জিবি
  • র‍্যাম – ২ জিবি
  • মেইন ক্যামেরা – ৮, ০৩, ০৩ মেগাপিক্সেল
  • ফন্ট ক্যামেরা – ৫ মেগাপিক্সেল
  • ব্যাটারি – ৪০০০ এম পি এয়ার
  • মূল্য – ৭,৫৯৯ টাকা।

(৩) Vivo Y21

আপনি যদি ১৫ হাজার টাকার মধ্যে ফোন কিনতে চান তাহলে Vivo কম দামে ভালো ফোন vivo y21 ফোনটি হবে আপনার জন্য পারফেক্ট। এই ফোনের এন্ড্রয়েড ভার্সন ব্যবহার করা হয়েছে ১১ যা একেবারে নতুন ফিচারস।

ফোনের পিছনে রয়েছে ২টি ক্যামেরা ১৩ মেগাপিক্সেল এবং ২ মেগাপিক্সেল। এছাড়া সেলফি তোলার জন্য থাকছে ৪ মেগাপিক্সেল ফন্ট ক্যামেরা। এই ফন্ট ক্যামেরা দিয়ে দিনের আলোতে ভালো ছবি তুলতে পারবেন। 

ডিসপ্লে ৬.৫ ইঞ্চি এর সাথে রয়েছে ৫০০০ এমএইচ ব্যাটারি। যার মাধ্যমে আপনি দুইদিন পর্যন্ত ব্যাকআপ পাবেন। মোবাইলটি চার্জ দেওয়ার জন্য থাকছে ১৮ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং সুবিধা।

ফিঙ্গারপ্রিন্ট এবং ফেসলক ব্যবহার করে ফোনটি লক করতে পারবেন। ৪ জিবি র‍্যাম এবং ৬৪ জিবি স্টোরেজ পাবেন ফোনটিতে। আকর্ষনীয় এই ফোনের দাম নির্ধারন করা হয়েছে ১৪,৯৯০ টাকা।

এক নজরে Vivo Y21 এর স্পেসিফিকেশন গুলো দেখে আসি –

  • ডিসপ্লে – ৬.৫ ইঞ্চি 
  • প্রসেসর – ১.৮
  • স্টোরেজ – ৬৪ জিবি
  • র‍্যাম – ৪ জিবি
  • মেইন ক্যামেরা – ১৩, ২ মেগাপিক্সেল
  • ফন্ট ক্যামেরা – ৪ মেগাপিক্সেল
  • ব্যাটারি – ৫০০০ এম পি এয়ার
  • মূল্য – ১৪,৯৯০ টাকা।

(৪) Samsung Galaxy M02S

যারা স্যামসাং ফোন ব্যবহার করতে ভালোবাসেন তারা কম দামে Samsung Galaxy M 02 S ফোনটি ক্রয় করতে পারেন। ফোনটিতে ব্যবহার করা হয়েছে ৬.৫ ইঞ্চি ডিসপ্লে এবং দুই দিনের মতো ব্যাকআপ দেওয়ার জন্য ৫০০০ এমএইচ ব্যাটারি।

৪ জিবি এবং ৬৪ জিবি স্টোরেজ ব্যবহার করা হয়েছে। রিয়াল ক্যামেরা ১৩ মেগাপিক্সেলের সাথে আরো দুইটি ক্যামেরা রয়েছে এবং ফন্ট ক্যামেরা থাকছে ৫ মেগাপিক্সেল।

কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৪৫০ প্রসেসর এর সাথে ৪ জিবি র‍্যাম এবং ৬৪ জিবি স্টোরেজ তো থাকছে। যার মাধ্যমে মোটামুটি ভালো গেমিং করতে পারবেন।

এক নজরে স্যামসাং গ্যালাক্সি এম ০২ এস এর স্পেসিফিকেশন গুলো দেখে আসি –

  • ডিসপ্লে – ৬.৫ ইঞ্চি 
  • প্রসেসর – ১.৮
  • স্টোরেজ – ৬৪ জিবি
  • র‍্যাম – ৪ জিবি
  • মেইন ক্যামেরা – ১৩, ২ মেগাপিক্সেল
  • ফন্ট ক্যামেরা – ৪ মেগাপিক্সেল
  • ব্যাটারি – ৫০০০ এম পি এয়ার
  • মূল্য – ১৪,৯৯০ টাকা।

(৫) Samsung Galaxy A03S

যারা স্যামসাং গ্যালাক্সি ফোনের গ্রহক তারা যদি Samsung কম দামে ভালো ফোন কেনার কথা চিন্তা করলে Samsung Galaxy A03S ফোনটি ক্রয় করতে পারেন।

অল্প দামের মধ্যে এতে ব্যবহার করা হয়েছে ৭২০x১৬৪০ রেজুলেশন এর এইচডি প্লাস ৬.৫ ইঞ্চি ডিসপ্লে। এন্ড্রয়েড ভার্সন ২.০ গিগাহার্জ এবং  অপারেটিং সিস্টেম ১১ ব্যবহার করা হয়েছে।

৬৪ জিবি স্টোরেজ এর সাথে ৪ জিবি র‍্যাম ব্যবহার করা হয়েছে এবং মাইক্রোএসডি কার্ডের মাধ্যমে ২৫৬ জিবি পর্যন্ত স্টোরেজ বাড়াতে পারবেন।

মোবাইলটিতে ব্যবহার করা হয়েছে ৫০০০ এমএইচ  ব্যাটারি। যার মাধ্যমে দুই দিনের মতো ব্যাটারি ব্যাকআপ পাবেন। ফোন দ্রুত চার্জ করার পাবেন ১৫ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং সুবিধা।

আকর্ষনীয় ছবি তোলার জন্য থাকছে ১৩, ২, ২ মেগাপিক্সেল রিয়াল ক্যামেরা এবং সেলফি তোলার জন্য থাকছে ৪ মেগাপিক্সেলের ফ্রন্ট ক্যামেরা। ফোন সিকিউরিটি এর জন্য থাকছে ফেসলক এবং ফিঙ্গারপ্রিন্ট।

এক নজরে স্যামসাং গ্যালাক্সি এ ০৩ এস এর স্পেসিফিকেশন গুলো দেখে আসি –

  • ডিসপ্লে – ৬.৫ ইঞ্চি 
  • প্রসেসর – ৩ গিগাহার্জ 
  • স্টোরেজ – ৬৪ জিবি
  • র‍্যাম – ৪ জিবি
  • মেইন ক্যামেরা – ১৩, ২, ২ মেগাপিক্সেল
  • ফন্ট ক্যামেরা – ৪ মেগাপিক্সেল
  • ব্যাটারি – ৫০০০ এম পি এয়ার
  • মূল্য – ১৩,৯৯০ টাকা।

(৬) Realme C25y

যারা ছবি তুলতে পছন্দ করেন Realme C25y ফোনটি তাদের জন্য সেরা। কারণ, এই ফোনের পিছনে রিয়াল ক্যামেরা হিসেবে ব্যবহার করা হয়েছে ৫০ মেগাপিক্সেল, ২ মেগাপিক্সেল এবং ২ মেগাপিক্সেলের ক্যামেরা এবং ফ্রন্ট ক্যামেরা ৮ মেগাপিক্সেল।

৬.৫ ইঞ্চি এইচডি ডিসপ্লে এর সাথে থাকছে ৭২০x১৬০০ রেজুলেশনের ডিসপ্লে। এই বড় ডিসপ্লেকে ব্যাকআপ দেওয়ার জন্য ৫০০০ এমএইচ ব্যাটারি থাকছে।

ফোনটি তৈরি করা হয়েছে একটি মাত্র ভেরিয়েন্টে। এই ভেরিয়েন্ট হলো ৪ জিবি রেম এবং ৬৪ জিবি স্টোরেজ। এছাড়া মাইক্রো এসডি কার্ডের মাধ্যমে ২৫৬ জিবি পর্যন্ত স্টোরেজ বাড়িয়ে নিতে পারবেন। 

ফোনের সিকিউরিটি এর জন্য ব্যবহার করা হয়েছে ফেসলক এবং ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর সুবিধা। এই ফোনের দাম নির্ধারন করা হয়েছে ১৩,৯৯০ টাকা।

এক নজরে রিয়েলমি সি ২৫ ওয়াই এর স্পেসিফিকেশন গুলো দেখে আসি –

  • ডিসপ্লে – ৬.৫ ইঞ্চি 
  • এন্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেম ১১
  • স্টোরেজ – ৬৪ জিবি
  • র‍্যাম – ৪ জিবি
  • মেইন ক্যামেরা – ৫০, ২, ২ মেগাপিক্সেল
  • ফন্ট ক্যামেরা – ৪ মেগাপিক্সেল
  • ব্যাটারি – ৫০০০ এম পি এয়ার
  • মূল্য – ১৩,৯৯০ টাকা।

(৭) Xiomi Poco C3

আপনারা যারা শাওমি কম দামে ভালো ফোন কিনতে চান তাদের কাছে Xiomi Poco C3 ফোনটি অনেক লাগবে। এই ফোনে ব্যবহার করা হয়েছে ৬.৪৩ ইঞ্চি ৭২০x১৬০০ রেজুলেশনের আকর্ষনীয় ডিসপ্লে।

এন্ড্রয়েড ভার্সন হিসেবে ব্যবহার করা হয়েছে অ্যান্ড্রয়েড ১০ অপারেটিং সিস্টেম। ১০ অপারেটিং সিস্টেম সম্পর্ক নতুন তাই নতুন নতুন আকর্ষনীয় ফিচারস গুলো উপভোগ করতে পারবেন।

ফোনের পিছনে থাকছে ৩টি ১৩+২+২ মেগাপিক্সেলের ক্যামেরা। সেলফি তোলার জন্য সামনে থাকছে ৫ মেগাপিক্সেলের একটি আকর্ষনীয় ক্যাসেরা। যার মাধ্যমে দিনের আলোতে সুন্দর ছবি তুলতে পারবেন।

এই মোবাইলটি তৈরি করা হয়েছে দুইটি ভেরিয়েন্টে। যার মধ্যে একটি হলো ৩ জিবি রেম এবং ৩২ জিবি ইন্টারনাল স্টোরেজ এবং অপরটি হলো ৪ জিবি রেম এবং ৬৪ জিবি ইন্টারনাল স্টোরেজ।

ব্যাটারি হিসেবে ব্যবহার করা হয়েছে ৫০০০ এমএইচ ব্যাটারি। যার মাধ্যমে গ্রহকগণ ব্যাকআপ পাবেন ১ থেকে ২ দিন। চার্জিং সুবিধার জন্য পাবেন ১০ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং সুবিধা।

সিকিউরিটি সেন্সর এর জন্য থাকছে ফিঙ্গারপ্রিন্ট এবং ফেসলক সেন্সর। যেহেতু ফোনটি দুইটি ভেরিয়েন্টের তাই ৩/৩২ জিবির দাম ১১,৯৯৯ টাকা এবং ৪/৬৪ জিবির দাম ১২,৯৯৯ টাকা।

এক নজরে শাওমি পকো সি ৩ এর স্পেসিফিকেশন গুলো দেখে আসি –

  • ডিসপ্লে – ৬.৪৩ ইঞ্চি 
  • এন্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেম ১০
  • স্টোরেজ – ৩২/৬৪ জিবি
  • র‍্যাম – ৩/৪ জিবি
  • মেইন ক্যামেরা – ১৩, ২, ২ মেগাপিক্সেল
  • ফন্ট ক্যামেরা – ৫ মেগাপিক্সেল
  • ব্যাটারি – ৫০০০ এমএইচ
  • মূল্য – ১১,৯৯৯/১২,৯৯৯ টাকা

(৮) Oppo A33

Oppo কম দামে ভালো ফোন গুলোর মধ্যে oppo a33 ফোনটি একবার ব্যবহার করে দেখতে পাবেন। এতে ব্যবহার করা হয়েছে ৬.৫ ইঞ্চি এইচডি ডিসপ্লে। 

১৮ ওয়ার্ড এর ফাস্ট চার্জিং সুবিধার সাথে ব্যাটারি পাচ্ছেন ৫০০০ এমএইচ। যার মাধ্যমে ১ দিনের বেশি ফোনটি ব্যাকআপ দিবে।

সুন্দর ছবি তোলার জন্য ফোনের পিছনে থাকছে ১৩+২+২ মেগাপিক্সেলের রিয়াল ক্যামেরা এবং সেলফি তোলার জন্য থাকছে ৮ মেগাপিক্সেলের ফ্রন্ট ক্যামেরা।

ফোনটি কৈরি করা হয়েছে একটি ভেরিয়েন্টে। যেখানে থাকছে ৩ জিবি রেম, ৩২ জিবি স্টোরেজ এবং এসডি কার্ড ব্যবহার করে ২৫৬ জিবি পর্যন্ত স্টোরেজ বাড়িয়ে নিতে পারবেন।

এন্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেম ১০ থাকায় নতুন নতুন সব ফিচারস গুলো উপভোগ করতে পারবেন। সিকিউরিটির জন্য ফিঙ্গারপ্রিন্ট তো থাকছে।

এক নজরে অপো এ৩৩ এর স্পেসিফিকেশন গুলো দেখে আসি –

  • ডিসপ্লে – ৬.৫ ইঞ্চি 
  • এন্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেম ১০
  • স্টোরেজ – ৩২ জিবি
  • র‍্যাম – ৩ জিবি
  • মেইন ক্যামেরা – ১৩, ২, ২ মেগাপিক্সেল
  • ফন্ট ক্যামেরা – ৮ মেগাপিক্সেল
  • ব্যাটারি – ৫০০০ এমএইচ
  • মূল্য – ১৩,৯৯০ টাকা।

(৯) Symphony Z22

Symphony কম দামে ভালো মোবাইল গুলোর মধ্যে অন্যতম হলো Symphony z22 ফোনটি। কম দামের মধ্যে ফোনটিতে ব্যবহার করা হয়েছে ৭০০xx১৬০০ রেজুলেশন এর ৬.৫২ ইঞ্চি ডিসপ্লে। 

১.৪ গিগাহার্জ প্রসেসর এর সাথে থাকছে এন্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেম ১১। এতো অল্প দামে এমন অপারেটিং সিস্টেম আগে কখনো দেখা যায়নি।

ফোনটিতে রেম ব্যবহার করা হয়েছে ২ জিবি এবং ৩২ জিবি স্টোরেজ এবং মাইক্রো এসডি কার্ডের মাধ্যমে ১২৮ জিবি পর্যন্ত স্টোরেজ বাড়িয়ে নিতে পারবেন।

ফোনের পিছনে থাকছে ১৩+২ মেগাপিক্সেলের দুইটি ক্যামেরা এবং সামনে থাকছে ৫ মেগাপিক্সেলের একটি ফ্রন্ট ক্যামেরা। সিকিউরিটির জন্য ফিঙ্গারপ্রিন্ট এবং ফেসলক সেন্সর সুবিধা রয়েছে।

মোবাইলে ব্যাটারি হিসেবে ব্যবহার করা হয়েছে ৪০০০ এমএইচ ব্যাটারি এবং ফাস্ট চার্জিং সুবিধা। যার মাধ্যমে দ্রুত সময়ে চার্জ হবে আপনার ফোন এবং ১ দিনের মতো ব্যাটারি ব্যাকআপ পাবেন।

এক নজরে ওয়ালটন প্রিমো জিএইচ ১০ এর স্পেসিফিকেশন গুলো দেখে আসি –

  • ডিসপ্লে – ৬.৫ ইঞ্চি 
  • প্রসেসর – ১.৪
  • অপারেটিং সিস্টেম ১১
  • স্টোরেজ – ৩২ জিবি
  • র‍্যাম – ২ জিবি
  • মেইন ক্যামেরা – ১৩+২ মেগাপিক্সেল
  • ফন্ট ক্যামেরা – ৫ মেগাপিক্সেল
  • ব্যাটারি – ৪০০০ এম পি এয়ার
  • মূল্য – ৮,১৯০ টাকা।

(১০) Infinix Smart 5 Pro

দশ হাজার টাকার মধ্যে কম দামে সেরা ফোন কিনতে চাইলে Infinix Smart 5 Pro কিনতে পারেন। কম বাজেটের ফোন ব্যবহার করা হয়েছে ৭২০x১৬০০ রেজুলেশনের ৬.৫২ ইঞ্চি ডিসপ্লে।

এন্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেম হিসেবে থাকছে ১১ এবং ১.৮ গিগাহার্জ কোয়াড কোর চিপসেট। তবে, প্রসেসর এর বিষয় তারা কিছু উল্লেখ করেনি। 

রেম ব্যবহার করা হয়েছে ২ জিবি এবং ইন্টার্নাল স্টোরেজ ব্যবহার করা হয়েছে ৩২ জিবি। এছাড়া মাইক্রো এসডি কার্ডের মাধ্যমে স্টোরেজ ২৫৬ জিবি পর্যন্ত বাড়িয়ে নিতে পারবেন।

ফোনের পিছনে থাকছে ১৩+QVGA ক্যামেরা, যার মাধ্যমে মোটামুটি ভালো ছবি তুলতে পারবেন এবং সেলফি তোলার জন্য থাকছে ৪ মেগাপিক্সেলের একটি ফ্রন্ট ক্যামেরা।

গ্রহকহণের জন্য সব থেকে ভালো দিক হলো এই ফোনে ব্যবহার করা হয়েছে ৬০০০ এমএইচ এর ব্যাটারি। যার ফলে দুই দিনের বেশি ব্যাকআপ দিতে পারবে। চার্জিং সুবিধার জন্য থাকছে ১০ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং সুবিধা।

সিকিউরিটি দেওয়ার জন্য থাকছে ফিঙ্গারপ্রিন্ট এবং ফেসলক সেন্সর এর সুবিধা। কম দামে ভালো ফোন বাংলাদেশ এখন ব্যাটারির সুবিধার জন্য এই ফোনটি অনেক বেশি জনপ্রিয়তা পেয়েছে।

শেষ কথা

আজকে আমরা জানলাম কম দামে ভালো ফোন 2022 সম্পর্কে। বর্তমানে কম দামে সেরা ফোন গুলোর মধ্যে উপরে দেওয়া ফোন গুলো উল্লেখযোগ্য।

এছাড়া, আপনারা যদি আরো কম দামে ফোন দেখতে চান তাহলে mobilemaya এই সাইট ভিজিট করুন। এখানে আপনি কম দামে বাটুন ফোন গুলোও পেয়ে যাবেন।

Leave a Comment

Share via
Copy link
Powered by Social Snap