কোডিং কি? কিভাবে শিখব (coding ki)

কোডিং কি (coding ki) আজকের আর্টিকেলের মাধ্যমে আমি আপনাদের সাথে বিস্তারিত আলোচনা করব। প্রগতির সঙ্গে চলতে থাকা বর্তমান সময়ে সব কাজেই এখন অটোমেটিক সিস্টেমে আবদ্ধ।

আপনি কি কোনো দিন ও ভেবে দেখেছেন কীভাবে এত দ্রুত মানব জাতির উন্নয়ন হচ্ছে? মোবাইলে থাকা অ্যাপের মাধ্যমে মাত্র একটি ক্লিক করলে মুহুর্তে খাবার আপনার ঘরে পৌঁছে যাচ্ছে।

শুধু তাই না দেশ বিদেশ থেকে খুব সহজে ভিডিও কলের মাধ্যমে কথা বলা যাচ্ছে কোনো প্রকার ঝামেলা ছাড়াই। মনে রাখতে হবে এই সব কিছুর পিছনে রয়েছে টেকনোলজি।

আর এই নতুন নতুন টেকনোলজির কাজ করতে হয় প্রোগ্রামিং ল্যাংগুয়েজ (program language) ও কোডিং coding c এর মাধ্যমে।

আপনি কি জানেন, কোডিং এর ক্যারিয়ার একটি লাভজনক ক্যারিয়ার। যার মাধ্যমে আপনি বিভিন্ন মাধ্যমে ইনকাম করার সুযোগ পাবেন।

যেমন, আপনি দেশ বিদেশের যেকোনো টেক মাল্টিন্যাশনাল কোম্পানিতে অনলাইনের মাধ্যমে কাজ করতে পারবেন। অনলাইন মার্কেটপ্লেসে ফ্রিল্যান্সার (freelancer) হিসাবে কাজ করতে পারবেন। আবার নিজে একটি টেক কোম্পানি খুলতে পারবেন।

এক কথায় ভালো ভাবে coding শিখতে পারলে এই মাধ্যমে প্রচুর পরিমানে ইনকাম করতে পারবেন।

তাহলে, চলুন নিচে থেকে জেনে আসি কোডিং কি বা কোডিং মানে কি (what is coding in bangla) এবং কোডিং কিভাবে শিখব

কোডিং কি? কোডিং বলতে কী বোঝায় (what is coding in bangla)

coding ki – কম্পিউটার হলো একটি আধুনিক যন্ত্র কিন্ত কম্পিউটার এখনো নিজের জন্য চিন্ত করতে পারে না। তাই মানুষ কম্পিউটারকে নির্দেশ দেয় এবং কম্পিউটার সেই নির্দেশ অনুসারে কাজ করে।

আর কোডিং হল ধাপে ধাপে নির্দেশাবলীর একটি তালিকা, যা কম্পিউটারে আপনি যেটা করতে চান সেটা আপনাকে করতে দেয়। এক কথায় কোডিং হল কম্পিউটারকে দেওয়া আপনার নির্দেশ।

কম্পিউটারে আমরা যে তথ্য গুলো ইনপুট (input) করি কম্পিউটার সেই তথ্য গুলো সরাসরি বুঝতে পারে না। তাই আমাদের দেওয়া ভাষাকে কম্পিউটার তার মেশিনে কনভার্ট করে।

পরবর্তীতে যখন আমাদেরকে ইনপুট (input) দেখায়, তখন আবার আমাদের ভাষাকে কনভার্ট করে। মনে রাখবেন, কম্পিউটার মেশিনের ভাষা হল 0 এবং 1। আর এগুলোকে বলা হয় বাইনারি ডিজিট বা সংখ্যা।

এক কথায় কম্পিউটার যেটা বুঝতে পারে সেটা হল কোড (cod), আর একজন কোডার যা করে সেটা হল কোডিং (coding).

তাহলে, আমরা বুঝতে পারি কোড হচ্ছে এমন একটি ভাষা যা কম্পিউটার সহজে বুঝতে পারে। আর কোডিং হল এই ভাষা সাজানোর একটি পদ্ধতি।

Coding আমাদের পক্ষে কম্পিউটার সফটওয়্যার, অ্যাপ্লিকেশন, গেমস, ওয়েবসাইট ইত্যাদি তৈরি করে দেয়। তাই, কোডার বা প্রোগ্রামার হল সেই সব ব্যাক্তিরা যারা আমরা যেটা কম্পিউটারে দেখি তার পিছনে যারা প্রোগ্রাম লিখে।

সহজ ভাষায় কোডিং কাকে বলে?

কোডিং কে আমরা অনেক সময় প্রোগ্রামিং ল্যাংঙ্গুয়েজ বলে থাকি। তাই সহজ ভাষায় বলা যায়, কম্পিউটারের সাথে মানুষের যোগ স্থাপন করার সহজ ভাষা হলো কোডিং।

কম্পিউটার মানুষের ভাষা বুঝতে পারে না। আপনি যখন কম্পিউটারকে কোনো কাজ করতে বলবেন, তখন কম্পিউটার শুধু বুঝবে 0 এবং 1। যাকে আমরা বাইনারি সংখ্যা হিসেবে জানি।

মনে রাখবেন, কম্পিউটারে যেকোনো কাজ তাড়াতাড়ি ও ত্রুটি হীন ভাবে করার জন্য কোডিং (coding) এর ভূমিকা অপরিসীম।

তাই, সব শেষে বলা যায় আমরা কম্পিউটারে যা দেখি এবং করি তা সব কিছুই কম্পিউটার কোডিং এর ফলাফল।

কোডিং কত প্রকার?

আমি আগেই বলেছি কোডিং ব্যবহার করে আপনি শুধু অ্যাপ্লিকেশন তৈরি করতে পারবেন সেটা কিন্ত নয়। কোডিং এর মাধ্যমে আপনি ওয়েবসাইট ডিজাইন এবং তৈরি করতে পারবেন।

এই বিষয়ের উপর ভিত্তি করে কোডিং ২ প্রকার, যথা –

  • ১. ওয়েব ল্যাংগুয়েজ কোডিং
  • ২. উইন্ডোজ কোডিং

তাহলে, চলুন নিচে থেকে ওয়েব ল্যাংগুয়েজ কোডিং এবং উইন্ডোজ কোডিং এর সম্পর্কে বিস্তারিত জেনে আসি।

(১) ওয়েব ল্যাংগুয়েজ কোডিং

আপনি মোটামুটি কোডিং শিখে ডেভেলপার হতে পারবেন এবং ওয়েবসাইট, ল্যান্ডিং পেজ, ব্লগ ইত্যাদি ডিজাইন করতে পারবেন।

এই কাজ গুলো করার জন্য HTML, JavaScript, CSS গুলো ভালো করে শিখতে হবে। ওয়েবসাইট ডিজাইনের মধ্যে আপনি শিখতে পারেন, ওয়েব কনটেন্ট, ওয়েব ক্লায়েন্ট, নেটওয়ার্ক সিকিউরিটি এবং সার্ভার স্পিপ্টিং।

(২)  উইন্ডোজ কোডিং

আপনি যখন আপনার ভিপিএ (VPA) প্রজেক্টের সঙ্গে যে কেনো বই লিখেন, তখন তাকে windows coding বলে।

মনে রাখবেন, উইন্ডোজ কোডিং এর চাহিদা অনেক বেশি এবং অনেক সুবিধা জনক। java, C++, C#, .net ইত্যাদি কোড লেখার সময় উইন্ডোজ অ্যাপ্লিকেশন ব্যবহার করা হয়।

আপনার যখন C এবং C++ ভালো করে জানা থাকবে তখন, C# এবং vp dot net আরো সহজে শিখে নিতে পারবেন। গেমিং, ওয়ার্ড এবং এক্সেল মত সফটওয়্যার বা অ্যাপ্লিকেশন লেখার জন্য উইন্ডোজ কোড ব্যবহার করা হয়।

তাছাড়া, ভিবিএ (VBA) এর মতো অ্যাপ্লিকেশন লেখার জন্য এই কোডিং অনেক কার্যকারী এবং অনেক দ্রুত লেখা যায়।

কোডিং শেখার সহজ উপায়

বর্তমান আধুনিক এই সময় কোডিং শেখার জন্য আপনারা অনেক উপায় পেয়ে যাবেন। যেখান থেকে খুব সহজে ভালো করে কোডিং শেখানো হয়।

কিন্তু, Coding শেখার জন্য আপনাকে প্রথমে যেকোনো একটি language শিখে নিতে হবে বা বেছে নিতে হবে। যেমন, Java, C, C++, PHP ইত্যাদি।

কোডিং (Coding) কিভাবে শিখব

কোডিং আপনি কোন জায়গায় ভর্তি না হয়েও বাড়িতে বসে শিখতে পারবেন। এর জন্য আপনারা নিচের পদ্ধতি গুলো অনুসারণ করতে করতে পারেন।

ইংরেজি এবং বাংলাতে অনেক YouTube channels রয়েছে, যেখান থেকে আপনারা কোনো প্রকার টাকা ছাড়া coding শিখতে পারবেন।

আমি নিচে কয়েকটি জনপ্রিয় ইউটিউব চ্যানেলের নাম উল্লেখ করছি। যেখান থেকে আপনারা ভিডিও টিউটোরিয়াল এর মাধ্যমে শিখে নিতে পারবেন।

W3Schools Online Tutorials

Hacker rank

Geeks for geeks

Programming Hero

Python tips and trick

কোডিং কিভাবে করে?

প্রথমে আপনাকে যেকোনো একটি প্রোগ্রামিং ল্যাংঙ্গুয়েজ জানতে হবে। যার মাধ্যমে আপনি coding লিখতে হবে।

মনে রাখবেন, লজিক তৈরি করা কোডিং এর মূল কাজ। যার ফলে আপনার তৈরি কোডিং আপনাকে কিছু output দিবে।

প্রত্যেকটি আলদা আলদা programing language এর আলদা আলদা সিনটেক্স থাকে যা সম্পর্ন কোডকে একটি পূর্ন গঠন তৈরি করে।

মনে রাখবেন, কোডিং বই পড়া বা অনলাইন ক্লাস নয়, কোডিং হাতে কলমে শিখতে পারলে ভালো হয়। তাই যে প্রোগ্রামিং ল্যাংঙ্গুয়েজ গুলো আপনি শিখছেন এই অ্যাপ্লিকেশন ডাউনলোড করে নিজে কোড প্রাকটিস করতে হবে।

আপনার কোডিং করতে কোথাও যদি ভুল হয় তাহলে error দেখিয়ে প্রোগ্রামের ভুল দেখিয়ে দিবে আপনার অ্যাপ্লিকেশনে।

বিশ্বের প্রথম কোডিং ভাষা

বিশ্বের প্রথম হাইলেভেল programing language,  কনরাড জুসে নামক এক ব্যাক্তি জার্মান ইলেক্ট্রোমেকানিকাল কম্পিউটার Z1- এ ১৯৪৩ থেকে ১৯৪৫ সালের মধ্যে তৈরি করেন।

সেই সময় বিশ্বের সব থেকে ছোট কোডিং লেখা হয়েছিলো, Hello word. নিচে সম্পর্ন রূপে কোডিংটি লেখা হল – 

main() {

printf (“hello, word/n”);

}

শেষ কথা

তাহলে, আজকে আমরা জানলাম কোডিং কি (coding ki) এবং কোডিং কিভাবে শিখব। আশাকরি, what is coding in bangla আর্টিকেলটি আপনাদের কাছে ভালো লাগছে।

Leave a Comment

Share via
Copy link
Powered by Social Snap