ঘরে বসে চাকরি করার সেরা উপায় (৭ টি)

0
162
ঘরে বসে চাকরি
ঘরে বসে চাকরি

বর্তমান এই আধুনিক যুগে ঘরে বসে চাকরি করে টাকা আয় করাটা অনেক লাভজনক হয়ে দাঁড়িয়েছে। কারণ, ইন্টারনেটে এমন অনেক মাধ্যম রয়েছে যেখানে আপনি সহজ কিছু অনলাইন জব করতে পারেন।

ইন্টারনেটের এই চাকরি গুলো আপনারা চাইলে ফুল-টাইম হিসাবে সারা জীবন করার সুযোগ পাবেন। আমি নিজেও একজন ঘরে বসে চাকরি করছি।

আর এই চাকরি থেকে আমি বেশ ভালো পরিমান টাকা আয় করছি। যাতে করে আমাকে সরকারি বা বেসরকারি চাকরি করার কোনো প্রয়োজন হচ্ছে না।

এখন আপনারা যদি ইন্টারনেট থেকে অনলাইন জব ঘরে বসে করে এক্সট্রা টাকা আয় করতে চান, তাহালে সেই সুযোগ পেয়ে যাবেন। কারণ আজকের এই আর্টিকেলে আমি আপনাদের বলবো অনলাইন জব এর ব্যাপারে।

ঘরে বসে চাকরি

আজকে আমি আপনাদের এমন কিছু online job এর কথা বলবো যার মাধ্যমে আপনারা অনেক দ্রুত টাকা আয় করতে পারবেন। আপনারা যারা ঘরে বসে অবসর সময় কাটান তারা সহজে এই online jon গুলো করতে পারবেন। 

(১) ব্লগিং (Blogging)

অনেকে আছেন যারা ঘরে বসে অবসর সময় কাটাতে কাটাতে বোরিং হয়ে গেছেন। তারা এই ব্লগিং অনলাইন জব করে টাকা আয় করতে পারবেন। 

আমি নিজেও একজন ব্লগিং করি। আমি ২ বছরের বেশি সময় ধরে online blogging job করছি। এটার মাধ্যমে আমি বেশ ভালো পরিমান টাকা আয় করছি।

আসলে ব্লগিং এর বিষয় গুলো হলো নিজে একটি ওয়েবসাইট তৈরি করে সেখানে নিজের জ্ঞান, অভিজ্ঞতা গুলোকে বিভিন্ন টিপস বা টিউটোরিয়াল এর মাধ্যমে আর্টিকেল লিখে ওয়েবসাইটে শেয়ার করা।

এভাবে আপনি নিয়মিত ভাবে আর্টিকেল পাবলিশ করার ফলে গুগল থেকে ভালো পরিমানে ভিজিটর  বা ট্রাফিক পাবেন। যখন অধিক পরিমানে ভিজিটর আপনার ওয়েবসাইটে আসবে তখন আপনি টাকা আয় করতে পাবেন।

আপনার ওয়েবসাইটে যখন প্রতিদিন গুগল থেকে ৫০০ থেকে ২০০০ ভিজিটর আসবে তখন আপনি গুগল এডসেন্স থেকে ভালো পরিমানে আয় করতে পারবেন।

গুগল এডসেন্স ছাড়াও আরো বিভিন্ন ভাবে যেমন, অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং, বিভিন্ন কোম্পানি বিঙ্গাপন, প্রডাক্ট রিভিউ এন্ড সেল টাকা আয় করতে পারবেন।

আমার মতো অনলাইনে টাকা আয় করার সব থেকে সহজ মাধ্যম হলো ব্লগিং। আপনি যদি ব্লগিং সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে চান, তাহালে ব্লগিং ওয়েবসাইট এর ক্যাটাগরির আর্টিকেল গুলো পডুন।

(২) Fiverr ওয়েবসাইটে কাজ করুন

Fiverr হলো অনলাইন জগতের অনেক অনেক জনপ্রিয় একটি ওয়েবসাইট। যেখানে আপনার করা কাজ গুলো সর্বনিম্ন $৫ ডলার থেকে বিক্রি করতে পাবেন।

বাংলাদেশ এবং ভারত থেকে অনেক ফ্রীল্যান্সার এই ওয়েবসাইটে কাজ করে। এই সাইটে বিভিন্ন  কোম্পানির বায়ার্নরা তাদরর কোম্পানির লোগো তৈরি করার জন্য ফ্রীল্যান্সার খুঁজে থাকেন।

মনে করুন, আপনি একজন লোগো ডিজাইনার। এই সাইটে কাজ করে ঘরে বসে মাসে হাজার হাজার টাকা আয় করতে পারবেন। এছাড়াও অনেক ধরনের কাজ এই সাইটে পেয়ে যাবেন। যেমন, 

  • Web design 
  • Web development 
  • Graphic Design 
  • Aritcle writer 
  • SEO 
  • Digital marketing 
  • App develop 
  • Animation 

এছাড়াও আরো বিভিন্ন কাজের জন্য আপনারা ক্লায়েন্ট পেয়ে যাবেন।

(৩) কনটেন্ট রাইটিং 

আপনার যদি লেখ লেখি করতে ভালো লাগে তাহালে এই কনটেন্ট রাইটিং job আপনার জন্য ঘরে বসে টাকা আয় করার সেরা উপায় হবে। ইন্টারনেটে এমন অনেক ওয়েবসাইট রয়েছে যেখানে আপনি কনটেন্ট রাইটিং জব নিতে পারেন। 

আপনার যদি লেখার অভিজ্ঞতা থাকে এবং টাইপিং স্পিড ভালো হয় তাহলে প্রতি ঘন্টার $১০ থেকে $১৫ ডলার আয় করতে পারবেন। বিভিন্ন ফ্রীল্যান্সিং ওয়েবসাইট যেমন, freelancer.com, fiverr.com, upwork.com, iwriter.com এই সাইট গুলেতে গিয়ে লেখার কাজ খুঁজে নিতে পারবেন।

(৪) ইউটিউব ভিডিও তৈরি

বর্তমানে ইউটিউব থেকে টাকা আয় করার সেরা মাধ্যম হয়ে দাঁড়িয়েছে। YouTube হলো জনপ্রিয় ভিডিও শেয়ারিং ওয়েবসাইট। যেখানে প্রতিদিন লক্ষ লক্ষ ভিডিও আবলোড করা হয়

এখন আপনারা যদি প্রশ্ন করেন এখানে ভিডিও আপলোড করে আমার লাভ কি? হা লাভ অবশ্যই রয়েছে। আপনারা হয়তো দেখেছেন ইউটিউবে যে লক্ষ লক্ষ ভিডিও রয়েছে সেগুলো দেখার শুরুতে বা দেখার মধ্যে বিভিন্ন বিজ্ঞাপন দেখায়।

এই বিজ্ঞাপন গুলো থেকে আপনারা ইনকাম করতে পারবেন। তবে, এর জন্য আপনাকে YouTube এর কিছু নিয়ম ও শর্তবলী মেনে কাজ করতে হবে। প্রথমত আপনার একটি ইউটিউব চ্যানেল খুলতে হবে।

এই চ্যানেলে নিয়মিতভাবে নিজের তৈরি করা ভিডিও পাবলিশ করতে হবে। মনে রাখবেন, কপিরাইট বা কপি করা ভিডিও আপলোড করলে হবে না। ধীরে ধীরে আপনার ভিডিও গুলো ভিজিটররা দেখতে থাকবে।

যখন আপনার চ্যানেলে ১০০০ সাবস্ক্রাইব এবং ৪ হাজার ঘন্টা ওয়ার্চ টাইম হয়ে যাবে, তখন মনিটাইজ এর জন্য গুগল এডসেন্স এর কাছে আবেদন করতে হবে। তারা ৩ থেকে ৭ দিনের মধ্যে আপনার চ্যানেল রিভিউ করে সব কিছু ঠিক থাকলে মনিটাইজ অন করে দিবো।

তখন থেকে আপনার ভিডিও গুলোতে বিজ্ঞাপন দেখাবে এবং আপনি টাকা ইনকাম করতে পারবেন। এখন আপনারা চাইলে ঘরে বসে বিভিন্ন রকমের ভিডিও তৈরি করে ইউটিউবে আপলোড করে টাকা আয় করতে পারবেন।

(৫) এন্ড্রয়েড অ্যাপ তৈরি

Android app তৈরি করে ঘরে বসে ইনকাম করাটা অনেক সহজ মাধ্যম হয়ে দাঁড়িয়েছে। এমন অনেকে আছেন যারা এন্ড্রয়েড অ্যাপ তৈরি করে google admob এর মাধ্যমে বিজ্ঞাপন লাগিয়ে google paly store এ পাবলিশ করছে।

এবার কেউ যখন আপনার তৈরি অ্যাপ ডাউনলোড করে ওপেন করবে, তখন বিজ্ঞাপন দেখানো হবে গুগল থেকে। যার বিপরীতে আপনি টাকা আয় করতে পারবেন।

এখন আপনারা যদি ঘরে বসে ইনকাম করতে চান, তাহালে প্রথমে একটি অ্যাপ তৈরি করতে হবে। এর জন্য আপনাকে একজন app develop কে দিয়ে ৫০০০ থেকে ১০০০০ টাকা দিয়ে একটি অ্যাপ তৈরি করে নিতে হবে।

তাছাড়া, আপনারা চাইলে সম্পর্ন ফ্রিতে ইন্টারনেটে থাকা বিভিন্ন ওয়েবসাইটের মাধ্যমে অ্যাপ তৈরি করতে পারবেন। 

App তৈরি করার পরে $২৫ ডলার দিয়ে google play store এ আপলোড করতে পারবেন। কিছু সংখ্যক মানুষরা যদি আপনার অ্যাপ ডাউনলোড করে তখন থেকে আপনি ঘরে বসে আয় করতে পারবেন।

(৬) অনলাইন টিউশন

বাংলাদেশের জনপ্রিয় কিছু ওয়েবসাইটে গিয়ে আপনাদের শিক্ষাগত যোগ্যতা অনুযায়ী সহজে টিউশন করতে পারবেন। এছাড়া ফেসবুকের বিভিন্ন গুরুপে টিউশন খুঁজে পাবেন।

আপনাদের সুবিধার জন্য বাংলাদেশের জনপ্রিয় কিছু টিউশন ওয়েবসাইটের লিংক দিয়ে দিবো যাতে আপনারা সহজে পড়ানোর জন্য স্টুডেন্ট খুঁজে পান।

  • Mytutor.com.bd
  • Bdtutors.com
  • Bdtutor24.com
  • Deshtutor.com

(৭) ডিজিটাল মার্কেটিং

ডিজিটাল মার্কেটিং কোর্স করে ঘরে বসে টাকা আয় করা লাভজনক মাধ্যমে। ৩ থেকে ৪ মাসের মধ্যে সম্পর্ন মার্কেটিং কোর্সটি শিখতে পারবেন। digital marketing করা মানে ইন্টারনেটে প্রাডাক্ট, সার্ভিস, ওয়েবসাইট, ভিডিও গুলোকে মার্কেটিং করা।

আপনি যদি digital marketing শিখতে পারেন, তাহালে ঘরে বসে এই কাজ করতে পারবেন। তাছাড়া এই মার্কেটিং এর চাহিদা বর্তমানে অনেক বেশি। আপনি চাইলে freelancing website গুলোতে গিয়ে ও মার্কেটিং এর কাজ করতে পারবেন।

আজকে আমরা কি শিখলাম

তাহালে বন্ধুরা আজকে শিখলাম ঘরে বসে চাকরি করার সেরা উপায় গুলো সম্পর্কে। আশাকরি আমার লেখা আর্টিকেলটি আপনাদের কাছে ভালো লাগছে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে