জন্ম নিবন্ধন যাচাই, সংশোধন এবং অনলাইন কপি ডাউনলোড করুন

1
295
জন্ম নিবন্ধন যাচাই, সংশোধন এবং অনলাইন কপি ডাউনলোড করুন
জন্ম নিবন্ধন যাচাই, সংশোধন এবং অনলাইন কপি ডাউনলোড করুন

বন্ধুরা আপকে আমি আপনাদের সাথে খুব গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ে আলোচনা করবো। আর সেরা হলো জন্ম নিবন্ধন যাচাই সংশোধন এবং অনলাইন কপি ডাউনলোড সম্পর্কে সকল তথ্য। 

তার আগে চলুন আমরা জেনে আসি জন্ম নিবন্ধন কি বা কাকে বলে সেটা সম্পর্কে।

জন্ম নিবন্ধন কি?

আসলে জন্ম নিবন্ধন হলো একজন মানুষের জন্ম ও মৃত্যু নিবন্ধন আইন, ২০০৪ সনের ২৯ নাম্বার আইন এর আওতায় নাম, লিঙ্গ, জন্ম তারিখ, স্থান, পিতা-মাতার নাম, তাদের জাতীয়তা এবং স্থায়ী ঠিকানা নির্ধারিত নিবন্ধক কর্তৃক রেজিস্টারে লেখা অথবা কম্পিউটারে এন্ট্রি করা বা জন্ম সনদ প্রদান করা হলো জন্ম নিবন্ধন।

সহজ ভাবে বলতে গেলে, একটি শিশু যখন জন্ম গ্রহন করে তখন তার নাম সরকারি খাতায় নাম যুক্ত করাকে বলা হয় জন্ম নিবন্ধন। আর জন্ম সম্পর্কে সকল তথ্য থাকে যে সনদে তাকে বলা হয় জন্ম নিবন্ধন বা জন্ম সনদ।

তাহালে আশাকরি সহজে বুঝতে পারছেন জন্ম নিবন্ধন কি বা জন্ম সনদ কি। চলুন এবার আমরা জেনে আসি কি কি কাজে জন্ম নিবন্ধন ব্যবহার করা হয় সেই সম্পর্কে।

জন্ম নিবন্ধন কি কি কাজে ব্যবহার করা হয়

আসলে জন্ম নিবন্ধন বা জন্ম সনদ বিভিন্ন কাজে ব্যবহার করা হয়। নিচে জন্ম নিবন্ধন এর ব্যবহার সমূহ উল্লেখ করছি।

  • শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ভর্তি
  • জাতীয় পরিচয়পএ প্রাপ্তি
  • বিবাহ নিবন্ধন
  • পাসপোর্ট ইস্যু
  • ভোটার তালিকা প্রণয়ন
  • ড্রাইভিং লাইসেন্স ইস্যু
  • বেসরকারি, সরকারি প্রতিষ্ঠানে চাকরিতে নিয়োগ
  • জমি রেজিষ্ট্রেশন 
  • ব্যাংক হিসাব খোলা
  • ট্রেড লাইসেন্স ইস্যু
  • ঠিকাদারি লাইসেন্স প্রাপ্তি
  • আমদানি ও রপ্তানি লাইসেন্স ইস্যু
  • বিদ্যুৎ, গ্যাস, পানি, টেলিফোন সংযোগ ইস্যু
  • গাড়ির রেজিষ্ট্রেশন ইস্যু
  • টিআইএন বা ট্যাক্স আইডেন্টিফিকেশন নম্বার ইস্যু

জন্ম নিবন্ধন সনদ কিভাবে তৈরি করবেন

জন্ম নিবন্ধন সনদ প্রাপ্তির জন্য কিছু কাগজ পএের প্রয়োজন হয়। আপনার শিশু যদি ক্লিনিকে বা হাসপাতালে জন্ম গ্রহন করে তাহালে সেখান থেকে একটি প্রদত্ত ছাড়পত্র বা সার্টিফিকেট ব্যবহার করে জন্ম নিবন্ধন সনদ পাওয়া যাবে।

এছাড়া এসএসসি (SSC) সনদ এর ফটোকপি, পাসপোর্ট ফটোকপি, আইডি কার্ডের ফটোকপি অথবা ইউনিয়ন পরিষদ, ওয়ার্ড কমিশনার, পৌরসভর চেয়ারম্যান কর্তৃক প্রদত্ত নাগরিকত্ব সনদ এর ফটোকপি ব্যবহার করে ও জন্ম নিবন্ধন সনদ তৈরি করা যায়।

কিভাবে জন্ম নিবন্ধন অনলাইন কপি ডাউনলোড করবেন

জন্ম নিবন্ধন অনলাইন কপি ডাউনলোড করতে বা জন্ম নিবন্ধন যাচাই করতে আপনাকে বাংলাদেশ সরকারের অনলাইন জন্ম নিবন্ধন তথ্য ব্যবস্থা বা BRIS ওয়েবসাইটটি ব্যবহার করতে হবে।

নিচে আমি অনলাইন জন্ম নিবন্ধন কপি ডাউনলোড বা জন্ম নিবন্ধন অনলাইন কপি চেক করার উপায় নিচে উল্লেখ্য করছি।

  • জন্ম নিবন্ধন অনলাইন কপি ডাউনলোড কবা চেক করার জন্য প্রথমে আপনাকে BRIS ওয়েবসাইটে ক্লিক করতে হবে।
  • ওয়েবসাইটে প্রবেশ করার পরে নতুন একটি পেজ দেখতে পাবেন।
  • জন্ম নিবন্ধন যাচাই করতে প্রথম খালি বক্সে যার জন্ম নিবন্ধন ডাচাই করতে চান তার জন্ম নিবন্ধন সনদে থাকা ১৭ ডিজিটের নিবন্ধন নম্বার দিন।
  • এবার দ্বিতীয় বক্সে যার জন্ম নিবন্ধন তথ্য যাচাই করতে চান তার জন্ম তারিখ প্রদান করুন। মনে রাখবেন যদি আপনার জন্ম তারিখ ২০০০ সালের ২৫ এপ্রিল হয় তাহালে দ্বিতীয় বক্সে 2000-04-25 এভাবে লিখবেন।
  • দুইটি বক্সে সঠিক তথ্য প্রদান করার পরে Verify বাটুনে ক্লিক করলে জন্ম নিবন্ধনে থাকা সকল তথ্য গুলো দেখতে পারবেন।
  • এবার আপনারা নিবন্ধন করা তথ্য গুলো সঠিক কিনা সেটা যাচাই করে নিন।
  • আর যদি Verify অপশনে ক্লিক করার পরে যদি লেখা আসে matching birth records not found তাহালে বুঝবেন উপরের দুইটি বক্সে কোথাও ভুল হয়েছে।

কিভাবে জন্ম নিবন্ধন সংশোধন করবেন

আপনারা যদি জন্ম নিবন্ধন তথ্য সংশোধন করতে চান তাহালে সেটার জন্য একটি ওয়েবসাইট রয়েছে। জন্ম নিবন্ধন সংশোধন করার ওয়েবসাইটে যাওয়ার জন্য এই লিংকে ক্লিক করুন।

ওয়েবসাইটে প্রবেশ করার পরে দুইটি ফাকা বক্স দেখতে পাবেন। প্রথম বক্সে জন্ম নিবন্ধন নম্বার এবং দ্বিতীয় বক্সে জন্ম তারিখ দিয়ে লগইন সাবমিট করলে জন্ম সনদ এ থাকা সকল তথ্য গুলো দেখতে পাবেন। যদি কোথাও ভুল মনে হয় তাহালে সংশোধন করার জন্য আবেদন করতে পারবেন।

জন্ম নিবন্ধন তথ্য সংশোধন করার শর্তাবলি

আপনারা যখন জন্ম নিবন্ধন সনদের ভুল তথ্য গুলো সংশোধন করবেন তখন আপনাকে কিছু নিয়ম বা শর্তাবলি মেনে কাজ করতে হবে। যেমন-

যদি পিতা-মাতার নাম সংশোধন করতে হয় তাহালে প্রথমে পিতা-মাতার জন্ম নিবন্ধন নম্বার দিয়ে তাদের জন্ম নিবন্ধন তথ্য সংশোধন আবেদন করে তাদের নাম সংশোধন করতে হবে।

যদি পিতা-মাতার জন্ম নিবন্ধন না থাকে তাহালে তাদের জন্ম তারিখ যদি ২০০০/০১/০১ তারিখের পূর্বে হয় তবে, জন্ম নিবন্ধন তথ্য সংশোধন করার আবেদন করা যাবে। এক্ষেএে পিতা-মাতার মৃত হলে তাদের প্রমাণ দলিল থাকতে হবে।

কিভাবে অনলাইনে জন্ম নিবন্ধন আবেদন করবেন

অনলাইনে জন্ম নিবন্ধন আবেদন করার জন্য এই লিংকে ক্লিক করে ওয়েবসাইটে প্রবেশ করুন। এবার জন্ম নিবন্ধন আপনি কোন ঠিকানার অফিস থেকে সংগ্রহ করবেন সেটা নির্বচন করুন।

তাছাড়া আপনি বর্তমানে যে ঠিকানায় বসাবাস করছেন চাইলে সেই ঠিকানা থেকেও জন্ম নিবন্ধন সনদ গ্রহণ করতে পারবেন। এবার পরের পেজ গুলো সঠিক ভাবে পূরণ করুন। এভাবে আপনারা জন্ম নিবন্ধন আবেদন করবেন।

জন্ম নিবন্ধন ফরম কোথায় পাবো?

আপনারা চাইলে সংশ্লিষ্ট নিবন্ধকের কার্যালয়ে থেকে জন্ম নিবন্ধন ফরম সংগ্রহ করতে পারবেন। আবার আপনারা ঘরে বসে ওয়েবসাইটের মাধ্যমেও ফরম সংগ্রহ করতে পারবেন। ওয়েবসাইটের মাধ্যমে ফরম সংগ্রহ করতে এই লিংকে যান।

আপনারা যদি জন্ম নিবন্ধন ফরম PDF হিসাবে ডাউনলোড করতে চান তাহালে এই লিংকে ক্লিক করুন। 

আজকে আমরা কি শিখলাম

তাহালে বন্ধুরা আজকে আমরা শিখলাম জন্ম নিবন্ধন যাচাই, সংশোধন এবং অনলাইন কপি ডাউনলোড করার নিয়ম বা উপায় গুলো সম্পর্কে। জন্ম সনদ যাচাই সম্পর্কে যদি কোনো প্রশ্ন বা পরামর্শ থাকে তাহালে নিচে কমেন্ট জানাবেন। আর ভালো লাগলে অবশ্যই শেয়ার করবেন।

1 মন্তব্য

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে