মনিটর কি? কত প্রকার, এর কাজ কি – 2022

মনিটর কি (What is monitor in bengali /bangla): এই বিষয় আজকের আর্টিকেলে বিস্তারিত আলোচনা করবো। মনিটর প্রায় সকলে ব্যবহার করেন। monitor হলো কম্পিউটারের একটি ডিসপ্লে ডিভাইস।

কম্পিউটার ব্যবহারকারীরা তাদের কাজকর্ম গুলো এই মনিটারে দেখে দেখে করতে পারে। অনেকে এটাকে আউটপুট ডিভাইস বলে থাকে।

তাহলে চলুন আজকের আর্টিকেলে আমরা জানবো “monitor কি বা মনিটর কাকে বলে, কত প্রকার ও কি কি এবং এর কাজ সম্পর্কে।

মনিটর কি? (What is monitor in bengali)

মনিটর হলো কম্পিউটার এর একটি আউটপুট ডিভাইস। কম্পিউটারের সাথে টিভির পর্দার মতো যে ডিভাইস বা অংশ থাকে তাকে মনিটর বলে।

কম্পিউটারে করা সকল ধরনের কাজ গুলো মনিটারে দেখানো হয়। মনিটারের কাজ হলো লেখা ও ছবি দেখানো। অনেকে মনিটরকে আবার ভিজুয়্যাল ডিসপ্লে ইউনিট বলে।

আপনি চাইলে মনিটরে টিভি কার্ড ব্যবহার করে টিভি স্টেশন থেকে সম্প্রচারিত সকল অনুষ্ঠান গুলো দেখতে পারবেন। মনিটরের একটি কোনো থেকে অপর একটি কোনার মাপকে মনিটর সাইজ বলা হয়।

কম্পিউটার মনিটরের সাইজ সাধারণত ১৪, ১৫, ১৭, ২১, ২৪ ইঞ্চি হয়ে থাকে। তবে, আপনি যখন বড় স্প্রেডশিটে বা গ্রাফিক্স ডিজাইন এর কাজ করার জন্য আরো বড় মনিটর ব্যবহার করতে পারবেন।

মনিটর ছাড়া একটি কম্পিউটার প্রায় অচল বললে চলে। কারণ, একজন ইউজার কম্পিউটারে করা সমস্ত প্রক্রিয়া গুলো এখানে দেখতে পায়। যদি এটা ব্যবহার না করা হয় তাহলে কোন ক্রিয়াকলাপ গুলো ইউজাররা দেখতে পাবেন না।

কম্পিউটার মনিটর ছাড়া কাজ করা সম্ভব কিন্ত গুরুত্বপূর্ণ সকল আউটপুট গুলো এর মাধ্যমে দেখতে পাবেন। আমরা কম্পিউটার যেটা ইনপুট করি সেটা এর মাধ্যমে দেখতে পায়।

মনিটর এর পূর্ণরূপ কি? | মনিটর অর্থ কি

মনিটর (monitor) এর পূর্ণরূপ হলো Mass On Newton Is Train On Rat.

  • M = Mass
  • O = On
  • N = Newton
  • I = Is
  • T = Train
  • O = On
  • R = Rat

মনিটর কাকে বলে?

যে ডিভাইসের মাধ্যমে কম্পিউটারে ইনপুট তথ্য গুলো সঠিক ভাবে নির্দেশ প্রদান করা হচ্ছে কিনা সেটা দেখা এবং সফট কপির মাধ্যমে আউটপুট ডাটা গুলো গ্রহন করা হয় সেই ডিভাইসকে মনিটর বলা হয়।

এক কথায়, কম্পিউটারের বিভিন্ন টেক্সট, ইমেজ, ফাইল, ডকুমেন্ট ওপেন করার জন্য এবং দেখার জন্য মনিটর ব্যবহার করা হয়। মনিটর কম্পিউটারের যেকোনো আউটপুট কে এক সেকেন্ডের আরো কম সময়ে ইউজারদের সামনে দেখানো হয়। 

মনিটর কত প্রকার ও কি কি?

সাধারণত মনিটর ৩ প্রকার। এই তিন প্রকার মনিটর হলো –

  1. সিআরটি মনিটর (CRT Monitor)
  2. এলসিডি মনিটর (LCD Monitor)
  3. এলইডি মনিটর (LED Monitor)

চলুন নিচে থেকে এই ৩ প্রকার মনিটর সম্পর্কে বিস্তারিত জেনে আসি। 

সিআরটি মনিটর (CRT Monitor)

CRT মনিটরের পূর্ণ নাম হলো ক্যাথোর রে টিউব। এই মনিটর গুলো দেখতে অনেকটা প্রচীন যুগের টিভির মতো। এই টিভির প্রধান অংশে পিকচার টিউবের মতো ক্যাথোর রে টিউব ব্যবহার করা হয়।

এই ক্যাথোর রে টিউব মনিটর গুলো ছবি বা ভিডিও ডিসপ্লে করতে সাহায্য করে। এই মনিটরের প্রধান ৩ টি রং লাল, সবুজ ও নীল হয় এবং এই তিনটি রঙের অনুপাতে অসংখ্য রঙের সৃষ্টি হয়।

এর ফলে মনিটরে প্রকাশিত ছবি বা ভিডিও গুলো রঙিন হয়। তাই এই মনিটরকে অনেক আবার রঙিন মনিটর বলে থাকে।

এই CRT মনিটরের প্রধান অসুবিধা গুলোর মধ্যে একটি হলো এটা চালাতে প্রচুর বিদ্যুৎ শক্তির প্রয়োজন হয় এবং এটা অনেক ভারি হয়। বর্তমানে এই ধরনের মনিটর খুবই কম দেখা যায়।

এলসিডি মনিটর (LCD Monitor)

প্রথম যখন কম্পিউটারের প্রচলন শুরু হয় তখন এই LCD মনিটরের প্রচুর ব্যবহার করা হতো। এই এলসিডি মনিটর তৈরি করা হয় Liquid Crystal Display এর সাহায্যে।

এই মনিটর গুলোতে অনেক বিদ্যুৎ খরচ কম লাগে এবং এটা দেখতে বর্তমান সময়ের LED মনিটরের মতো। তবে, LCD মনিটর LED মনিটরের থেকে একটু বেশি দামি হয়ে থাকে।

এলইডি মনিটর (LED Monitor)

বর্তমান সময়ে এলইডি মনিটর (LED Monitor) সব থেকে বেশি দেখা যায়। প্রযুক্তির এই যুগে এই ধরনের মনিটর গুলোতে বিভিন্ন ভাবে তৈরি করা হয়েছে। যেমন – হালকা মোরা ডিসপ্লে, সোজা ডিসপ্লে ইত্যাদি। 

এই মনিটর গুলোতে ক্যাথোর রে টিউব ব্যবহার না করার কারণে অনেক পাতলা এবং হালকা হয়। তাছাড়া এই মনিটর গুলো কোথাও রাখতে অনেক কম জায়গায় প্রয়োজন হয়।

এলইডি মনিটরের গুরুত্বপূর্ণ একটি দিক হলো এটা চলতে অনেক কম বিদ্যুৎ প্রয়োজন হয়। এগুলো তৈরির প্রধান উপাদান হলো লাইট ইমিটিং ডায়োড।

মনিটর কি ধরনের ডিভাইস?

কম্পিউটারে ইনপুট ডাটা গুলো দেওয়া পরে মনিটরের মাধ্যমে আউটপুট ডাটা গুলো ইউজার এর সামনে তুলে ধরে। তাই মনিটর একটি আউটপুট ডিভাইস।

মনিটর এর কাজ কি?

কম্পিউটারে আমরা বিভিন্ন তথ্য ইনপুট করি। এই ইনপুট ডাটা গুলো প্রসেসিং করে সকল ইউজারদের কে মনিটরের মাধ্যমে দেখানো হয়।

আরো সহজে বলতে গেলে, কম্পিউটারে আমরা যে কাজ গুলো করি সেটা মনিটরের মাধ্যমে আউটপুট হিসেবে আমরা দেখতে পায়। আর এটাই হলো মনিটর এর কাজ।

মনিটর দাম কত? | মনিটর প্রাইজ ইন বাংলাদেশ

২০২২ সালে বিভিন্ন কোম্পানির মনিটরের দাম নিচে উল্লেখ করা হয়েছে। 

  • BenQ GW2280 ২২ ইঞ্চি Eye-Care Desktop Monitor ১৫,০০০ টাকা
  • ViewSonic VA2215-H ২২ ইঞ্চি Full HD Monitor ১৪,৫০০ টাকা
  • Jovision JVS-22LED-A ২২ ইঞ্চি Professional LED Monitor ১৩,৮০০ টাকা
  • View Sonic VA2261-2 ২২ ইঞ্চি LED Monitor ১১,৯০০ টাকা
  • View One ২৪ ইঞ্চি Flat Monitor with Digital TV Tuner ৮,০০০ টাকা
  • Poly Sonic ১৮.৫ ইঞ্চি Widescreen Full HD LED Computer Monitor ৫,৫০০ টাকা
  • Hi Speed HS 1701 Sqare ১৭ ইঞ্চি Full HD LED Monitor ৩,৬৫০ টাকা
  • Gigasonic GS1701 ১৭ ইঞ্চি Square LED Monitor ৩,৬০০ টাকা
  • Dell E170S ১৭ ইঞ্চি Square Flat Panel LCD Computer Monitor ৩,৫০০ টাকা
  • HP L1710 ১৭ ইঞ্চি Square LCD Monitor ৩,৫০০ টাকা

উপরে উল্লেখ করা মনিটর গুলো আপনি চাইলে ঘরে বসে অনলাইনের মাধ্যমে ক্রয় করতে পারবেন। এক্ষেত্রে আপনি bdstall এই ওয়েবসাইট ভিজিট করুন।

মনিটর দেখতে কেমন?

মনিটর দেখতে কিছুটা টিভির মতো। টিভি কন্ট্রোল করার জন্য যেমন একটি রিমোট এবং বিভিন্ন চ্যানেল থাকে। অপর দিকে মনিটরে কোন রিমোট  এবং টিভি চ্যানেল থাকে না।

কম্পিউটারের সাথে মনিটর যুক্ত করে বিভিন্ন ধরনের কাজকর্ম করা যায়। কম্পিউটারে কাজ করার বিভিন্ন প্রক্রিয়া গুলো এই মনিটরে দেখতে পাওয়া যায়।

শেষ কথা

আজকের আলোচনা আমরা জানলাম মনিটর কি (What is monitor in bengali /bangla) এর সম্পর্কে বিস্তারিত। monitor কি এই সম্পর্কে যদি কোনো প্রশ্ন বা পরামর্শ থাকে তাহলে কমেন্টে অবশ্যই জানাবেন এবং ভালো লাগলে শেয়ার করবেন।

Leave a Comment

Share via
Copy link
Powered by Social Snap