মোবাইল ফোনের গুরুত্ব | important of mobile phone

1
266
মোবাইল ফোনের গুরুত্ব, ব্যবহার এবং উপকারিতা
মোবাইল ফোনের গুরুত্ব, ব্যবহার এবং উপকারিতা

মোবাইল ফোনের গুরুত্ব (important of mobile phone in bangla) – যখন কথা বলা হয় মোবাইল ফোনের ব্যবহার, উপকারিতা বা সুবিধা নিয়ে তখন হয়তো আমরা সবাই জানি আমাদের প্রত্যেকের জীবনে মোবাইল বা স্মার্টফোন কতটা গুরুত্বপূর্ণ।

বর্তমানে আমরা সবাই মোবাইল ফোন ব্যবহার করছি যোগাযোগ, সামাজীকরন, মনোরঞ্জন সহ আরো বিভিন্ন ধরনের কাজ কর্ম করার জন্য। আধুনিক এই ডিজিটাল সময় আপনি একটি স্মার্টফোন ছাড়া কখনো নিজের জীবন কল্পনা করতে পারবেন না।

এখান থেকে কয়েক বছর আগে যখন আমরা ছোট ছোট মোবাইল ফোন ব্যবহার করতাম শুধুমাত্র ভয়েস কল এবং এসএমএস পাঠানোর জন্য।

তবে, বর্তমান সময়ের আধুনিক মোবাইল গুলো বলতে আমরা বুঝার শক্তিশালী স্মার্টফোন গুলোকে। এই স্মার্টফোন গুলোকে মিনি কম্পিউটার এর সাথে তুলনা করা হয় বা বলা হয় মিনি কম্পিউটার।

এগুলো একটি কম্পিউটার এর মতো শক্তিশালী। যার মাধ্যমে আপনারা সহজে ভিডিও কল, ইন্টারনেট ব্যবহার, গেমিং করা সহ আরো বিভিন্ন ধরনের কাজ করতে পারবেন।

মোবাইল ফোনের ব্যবহার আমাদের দৈনন্দিন জীবনের কাজকর্ম গুলোকে আরো অনেক বেশি সহজ করে দিয়েছে। কারণ, যেকোনো কাজ আমরা মোবাইলের যেকোনো সময় করে নিতে পারছি।

এখন আমরা যদি বলি মোবাইল ফোনের গুরুত্ব গুলোর সম্পর্কে তাহালে বলে শেষ করা যাবে না। কারণ এই তালিকা অনেক বড় হয়ে যাবে। এই তালিকা অনেক বড় হয়ে যাওয়ার কারণে মোবাইল ফোনের উপকারিতা দিন দিন বেড়ে যাচ্ছে।

তাহালে, চলুন বন্ধুরা নিচে থেকে আমরা জেনে আমি মোবাইল ফোনের উপকারিতা, ব্যবহার এবং গুরুত্বের ব্যাপারে।

মোবাইল ফোনের গুরুত্ব | important of mobile phone

আগের সময় গুলোতে আমরা যখন ইন্টারনেট ব্যবহার করার কথা চিন্তা করতাম তখন আমাদের প্রয়োজন হতো একটি কম্পিউটার বা ল্যাপটপ।

কিন্ত বর্তমান সময়ের আধুনিক মোবাইল ফোন গুলো এমন সব প্রযুক্তি দিয়ে তৈরি করা হয়েছে, যার মাধ্যমে আপনারা ভয়েস কল এর সাথে সাথে কম্পিউটার এর মতো internet ব্যবহার করতে পারবেন।

আর এই কারণে মোবাইল ফোন এর গুরুত্ব এবং ব্যবহার দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। তাছাড়া এর মাধ্যমে আপনারা অনেক সুন্দর এবং আকর্ষনীয় সব গেমস গুল খেলতে পারবেন কম্পিউটার এর মতো।

তাছাড়া, এখান থেকে ১৫ – ২০ বছর আগে কেউ কোনো দিন চিন্ত করেনি ভবিষ্যতে মোবাইলের মাধ্যমে যোগাযোগ করাতে আমাদের জন্য এতটা সহজ হবে। 

আমি নিজে যদি একটি স্মার্টফোন ব্যবহার করেন তাহালে একদিন মোবাইল ছাড়া চলাচল করার চেষ্টা করে দেখুন তো? আপনি সহজে বুঝতে পারবেন মোবাইলের ব্যবহার আমাদের জীবনে কতটা গুরুত্বপূর্ণ। 

তাহালে, চলুন নিচে থেকে জেনে আসি মোবাইল এর ব্যবহার এবং উপকারিতা গুলোর ব্যাপারে। এর মাধ্যমে আপনারা সহজে বুঝতে পারবেন আমাদের দৈন্দিন জীবন জাপন করার জন্য এর গুরুত্ব কতটা।

মোবাইল ফোনের ব্যবহার এবং উপকারিতা

(১) যোগাযোগ মাধ্যম

মোবাইল ফোনের অন্যতম একটি গুরুত্বপূর্ণ দিক হলো এর মাধ্যমে সহজে বিশ্বের যেকোনো জায়গায় খুব সহজে যোগাযোগ করা যায়।

আধুনিক মোবাইল গুলো ব্যবহার করে আমরা voice call বা video call এর মাধ্যমে আপনার আত্মীয় স্বজন, বন্ধু বান্ধব, প্রিয়জন, অফিসের কর্মীদের সাথে যোগাযোগ করতে পারবেন।

(২) ছবি তোলা ও ভিডিও করা

আধুনিক mobile phone গুলোর মাধ্যমে আপনি ডিজিটাল ক্যামেরার মতো সুন্দর এবং আকর্ষনীয় ছবি তুলতে পারবেন। আমরা এখন সবাই বিভিন্ন স্টাইলে ছবি বা সেলফি তুলতে পছন্দ করি।

তাছাড়া, আপনারা মোবাইল এর মাধ্যমে প্রফোসানাল ভাবে ভিডিও রেকর্ড করতে পারবেন। এমন অনেক ইউটিউব বার রয়েছে যারা মোবাইল ফোন দিয়ে তাদের আপলোড করা বিভিন্ন গুলো রেকর্ড করে।

(৩) মনোরঞ্জন করা

বর্তমানের স্মার্টফোন গুলো অনেক ক্ষেত্রে তৈরি করা হয় মানুষের মনোরঞ্জন করার উদ্দেশ্য নিয়ে। এই সব মোবাইল গুলোতে দেওয়া হয় ৫ ইঞ্চি থেকে ৬ ইঞ্চি পর্যন্ত HD ডিসপ্লে।

যার মাধ্যমে আপনারা মুভি দেখা, ভিডিও গেম খেলা, ইন্টারনেট ব্যবহার, গান শোনা, সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহার করে নিজের মনকে মনোরঞ্জন করতে পারবেন।

(৪) জিপিএস (GPS) ব্যবহার

আধুনিক মোবাইল গুলোতে ব্যবহার করা হয়েছে জিপিএস (GPS)। যার মাধ্যমে আপনারা অচেনা জায়গার রাস্তা, স্কুল, কলেজ, হোটেল ইত্যাদি গুলো সহজে খুঁজে বের করতে পারবেন।

আর এই সব কিছু সম্ভব google map এর ব্যবহারের মাধ্যমে। গুগল ম্যাপ ব্যবহার করে আপনারা এই রাস্তা, স্কুল, কলেজ  হাসপাতাল সহ আরো বিভিন্ন জায়গা খুঁজে পাবেন।

(৫) ইন্টারনেট ব্যবহার করা

এখান থেকে কয়েক বছর আগে আমরা যখন কেউ ইন্টারনেট ব্যবহার করার কথা চিন্তা করতাম তখন এটা সম্ভব ছিলো শুধুমাত্র কম্পিউটার বা ল্যাপটপ এর মাধ্যমে।

কিন্ত আজ মোবাইলের মাধ্যমে আপনারা রাত দিন ২৪ ঘন্টা internet ব্যবহার করতে পারছেন। ইন্টারনেটের মাধ্যমে সোশ্যাল মিডিয়াতে বিভিন্ন বন্ধুদের সাথে কথা বলা, ভিডিও দেখা, অনলাইন কেনাকাটা করা সব কিছুই করতে পারবেন ইন্টারনেট ব্যবহার করার মাধ্যমে।

(৬) মোবাইল দিয়ে টাকা আয়

আপনি হয়তো জানেন ঘরে বসে মোবাইল দিয়ে টাকা আয় করা যায়। অনেকে মোবাইল দিয়ে টাকা আয় করছে। এই কাজ গুলো আপনারা চাইলে পার্টটাইম বা ফুলটাইম হিসাবে করতে পারবেন।

তাছাড়া আপনারা মোবাইল দিয়ে কাজ করতে পারবেন যেমন, ইউটিউব থেকে আয়, ব্লগিং করে টাকা আয়, ক্যাপচা টাইপিং সহ বিভিন্ন ধরনের কাজ করতে পারবেন।

আমি নিজেও প্রথমে পার্ট-টাইম হিসাবে মোবাইল দিয়ে ব্লগিং শুরু করেছিলাম। কিন্ত এখন কম্পিউটার এর মাধ্যমে প্রফোশনাল ভাবে ব্লগিং করি।

(৭) শিক্ষা অর্জন ও গবেষণা করা

বর্তমানে করোনা ভাইরাসের কারণে আমরা ঘরে বসে অনলাইনের মাধ্যমে ক্লাস করছি। এজন্য শিক্ষার ক্ষেত্রে মোবাইলের চাহিদা প্রচুর পরিমানে বৃদ্ধি পাচ্ছে।

তাছাড়া আপনি যদি নতুন কিছু গবেষনা করতে চান তাহালে মোবাইলের মাধ্যমে ইন্টারনেট থেকে নানা ধরনের তথ্য জানতে পারবেন। মনে করুন আপনি নাসা সম্পর্কে জানতে চাচ্ছেন। এক্ষেত্রে আপনি মোবাইল থেকে তথ্য জানতে পারবেন।

(৮) লাইভ টিভি দেখা

এখনকার সময়ের স্মার্টফোন গুলোতে লাইভ টিভি (tv) দেখার জনপ্রিয় একটি মাধ্যম হয়ে দাঁড়িয়েছে। আপনারা মোবাইলের মাধ্যমে প্রত্যেকটি টিভি চ্যানেল গুলো দেখতে পারবেন।

এর জন্য বিভিন্ন অ্যাপস বা সফটওয়্যার পাবেন সেগুলো ফোনে ডাউনলোড করে ইনস্টল করে ইন্টারনেটের মাধ্যমে tv দেখতে পারবেন। মোবাইলে বড় HD ডিসপ্লে থাকার কারণে দেখে মজা নিতে পারবেন।

(৯) টর্চলাইট (flash light)

অনেক সময় দেখা যায় অতি সাধারণ জিনিস গুলো অনেক কাজে প্রয়োজন হয়। আপনি যখন রাতে চলাচল করবেন তখন অবশ্যই আপনার মোবাইলের টর্চলাইট (flash light) কাজে আসে।

আপনার হাতে থাকা মোবাইলে যদি flash light না থাকতো, তাহালে আপনাকে আলদা করে একটি টর্চলাইট ব্যবহার করতে হতো, যা আপনার কাছে ঝামেলা মনে হতো 

(১০) ভিডিও কল (video call)

এই সময়ের আধুনিক মোবাইলে সামনে ফন্ট ক্যামেরা এবং পিছনে ক্যামেরা দেওয়া হয়। এই ফন্ট ক্যামেরার মাধ্যমে আমরা খুব সহজে বন্ধু বান্ধব, প্রিয়জনের সাথে ভিডিও কলে কথা বলতে পারি।

(১১) গেম খেলা

আগের সময়ে গেম খেলার কথা চিন্তা করলে কম্পিউটার বা ল্যাপটপ এর মাধ্যমে গেম খেলতে হতো। কিন্ত এখনকার সময়ের স্মার্টফোন গুলো এতটা শক্তিশালী করে তৈরি করা হয়েছে যার মাধ্যমে হাই কোয়ালিটির গেমিং করতে পারবেন।

বর্তমান সময়ের জনপ্রিয় গেম গুলো free fire, pubg, clash of clans এই সব গেম গুলো মোবাইলের মাধ্যমে খেলতে পারবেন। এছাড়া অনেক জনপ্রিয় গেম রয়েছে যা mobile phone মাধ্যমে খেলতে পারবেন।

(১২) নোট ও টেক্সট করা

আপনার দৈনিক হিসাব গুলো নোট প্যাডে বা এক্সেল ফাইলে লিখে রাখতে পারবেন খুব সহজে। আমি আমার ব্লগের আর্টিকেল গুলো মোবাইলের মাধ্যমে লিখে থাকি।

একই ভাবে আপনি আপনার ব্যবসা বা অফিসের গুরুত্বপূর্ণ বিষয় গুলো মোবাইল ডিভাইসে লিখে সেব করে রাখতে পারবেন। এর জন্য আপনারা আলদা আলদা মোবাইল অ্যাপ্লিকেশন বা সফটওয়্যার গুগল প্লেস্টর থেকে ডাউনলোড করে নিতে পারেন।

(১৩) মোবাইল ব্যাংকিং কার্যক্রম

আপনার হাতের স্মার্টফোন দিয়ে ব্যাংকে না গিয়ে বাড়িতে বসে mobile banking এর banking transaction গুলো করতে পারবেন। মোবাইলের মাধ্যমে ব্যাংক থেকে টাকা পাঠানো, টাকা গ্রহন, চেক বুক এপ্লাই, ডেবিট কার্ড এপ্লাই সব কিছু করা সম্ভব।

আপনি এই সব কাজ গুলো যদি ব্যাংকে গিয়ে করতেন তাহালে কতটা সময় লাগতো সেটা একবার ভেবে দেখুন। একটি মোবাইল ডিভাইস ব্যবহার করে আপনার সময় কতটা বাঁচিয়ে দিচ্ছে সেটা একবার ভেবে দেখুন।

(১৪) অনলাইন শপিং করা

আধুনিক এই সময় লোকজন মার্কেটে না গিয়ে ঘরে বসে অনলাইন শপিং করতে বেশি পছন্দ করে। ইন্টারনেটে এমন অনেক ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান রয়েছে যারা অনলাইনের মাধ্যমে পণ্য বিক্রয় করে।

আপনারা মোবাইলে ইন্টারনেটের মাধ্যমে ঔ সকল ই-কমার্স প্রতিষ্ঠানের ওয়েবসাইট থেকে পণ্য পছন্দ করে পেমেন্ট করার কয়েক দিনের মধ্যে আপনার ক্রয় করা পণ্য আপনার বাসায় পাঠিয়ে দিবে।

(১৫) বিল পেমেন্ট ও রিচার্জ করা

আগের দিন গুলোর মতো আপনাকে বিল পেমেন্ট বা পরিশোধ করার জন্য ব্যাংকে গিয়ে লম্বা লাইনে ঘন্টার পর ঘন্টা দাঁড়িয়ে থাকতে হবে না। আপনি মোবাইলের মাধ্যমে বিকাশ, রকেট, নগদ, ব্যাংকের বিভিন্ন কার্ড থেকে বিল পেমেন্ট করতে পারবেন কয়েক মিনিটের মধ্যে।

এর মাধ্যমে আপনি বিদ্যুৎ বিল, পানি বিল, গ্যাশ বিল সহ আরো বিভিন্ন বিল পরিশোধ করতে পারবেন। তাছাড়া মোবাইলে টাকা রিচার্জ করার জন্য বাজারে যাওয়ার প্রয়োজন নেই। ঘরে বসে উপরের মাধ্যম গুলোর মাধ্যমে সহজে রিচার্জ করতে পারবেন।

(১৬) খবর (news) জানুন

মোবাইলের মাধ্যমে আপনি সকালে ঘুম থেকে উঠে প্রতিদের আপডেট নিউজ গুলো জানতে পারবেন মুহূর্তের মধ্যে।

এর জন্য আপনাকে ফোনে ইন্টারনেট কানেকশন দিয়ে লাইভ নিউজ চ্যানেল, ইউটিউব, নিউজ অ্যাপ্লিকেশন, নিউজ ওয়েবসাইট গুলো ভিজিট করলে আপডেট সংবাদ গুলো জানতে পারবেন।

আজকে আমরা কি জানলাম

তাহালে, বন্ধুরা আজকে আমরা জানলাম মোবাইল ফোনের গুরুত্ব, উপকারিতা এবং ব্যবহার গুলো সম্পর্কে। আমার লেখা important of mobile phone আর্টিকেলটি কেমন লাগলো কমেন্টে জানাবেন।

1 মন্তব্য

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে