রাউটার কি? রাউটার ব্যবহারের নিয়ম ও সুবিধা

0
136
রাউটার কি রাউটার ব্যবহারের নিয়ম ও সুবিধা
রাউটার কি রাউটার ব্যবহারের নিয়ম ও সুবিধা

বন্ধুরা আজকে আমি বলবো রাউটার কি, রাউটার ব্যবহারের নিয়ম, রাউটার কিভাবে কাজ করে, রাউটারের কাজ করার পদ্ধতি গুলোর ব্যাপারে।

এছাড়া, router সম্পর্কে আরো বিভিন্ন ধরনের প্রশ্ন নিয়ে কথা বলবো। যেমন পকেট রাউটার কি, পকেট রাউটারের সুবিধা, পকেট রাউটার কিভাবে কাজ করে এই সকল বিষয় গুলো নিয়েও আমি কথা বলবো।

আমার লেখা এই আর্টিকেলটি সম্পর্ন পড়ার পরে আপনারা সহজে বুঝতে পারবেন, ওয়াইফাই রাউটার কি এবং রাউটার কেনার আগে যে বিষয় গুলো দেখে নিতে হবে।

বর্তমানে প্রত্যেক ১০০ জনের মধ্যে ৭০ জন ইন্টারনেট ব্যবহার করছেন। এই ইন্টারনেট ব্যবহার করে আমরা বিভিন্ন ধরনের কাজ যেমন, email, online shopping, mobile recharge, bill payment, DTH recharge ইত্যাদি কাজ গুলো করে থাকি।

তাছাড়া, প্রতিটা সরকারি বেসরকারি দপ্তর গুলোতে ইন্টারনেটের সাহায্যে নানা ধরনের অফিসিয়াল কাজ গুলো করা হচ্ছে। ইন্টারনেট ব্যবহারের ফলে আমাদের প্রতিদিনের কাজ গুলো আরো সহজ হয়ে যাচ্ছে।

সারা বিশ্বে করনো ভাইরাস (corona virus) এর জন্য এই বিপদের সময় দেশ বিদেশে lock down এর জন্য আমাদের ঘরে বসে কাজ করতে হচ্ছে। আর এই কাজ গুলো সম্ভব শুধুমাত্র ইন্টারনেট এর জন্য।

আমরা প্রত্যেকেই আজ ইন্টারনেট ব্যবহার করছি এবং ইন্টারনেট এর সাথে জড়িত বিভিন্ন বিষয় গুলোর বিষয়ে আমরা কম বেশি সবাই জানি। তবে, এমন অনেক মানুষ রয়েছে যারা নতুন ইন্টারনেট ব্যবহার করছে।

আর এই নতুন মানুষের জন্য একটি জরুলি বিষয় হলো রাউটার। router এবং internet এর মাঝে থাকা সম্পর্কটা অনেক বেশি গুরুত্বপূর্ণ। তাই চলুন নিচে থেকে জেনে আসি router কি এবং রাউটার এর ব্যবহার সম্পর্কে।

রাউটার কি? (Wt is router in bangla)

Router হলো এমন একটি Networking hardware যাকে একটি কম্পিউটার নেটওয়ার্কিং ডিভাইস বলা যেতে পারে। এই নেটওয়ার্কিং ডিভাইস এর সাথে সংযুক্ত হয়ে তাদের মধ্যে data packets গুলোকে move বা forward করা হয়।

মূলত একটি রাউটার এর প্রধান কাজ হলো বিভিন্ন কম্পিউটার এর মধ্যে যোগাযোগের একটি মাধ্যম তৈরি করা। আর এই নেটওয়ার্ক গুলোর মধ্যে যোগাযোগ স্থাপন করার জন্য IP এর ব্যবহার করা হয়।

সহজে রাউটার কাকে বলে?

Router হলো এমন একটি electronic device যার মাধ্যমে বিভিন্ন আলদা আলদা কম্পিউটার নেটওয়ার্ক গুলোকে সংযুক্ত করা হয়।

বেতার বা ওয়্যারলেস এর মাধ্যমে যেগুলো router যে বিভিন্ন কম্পিউটার গুলোকে কানেক্ট করে তাকে বলা হয় ওয়াইফাই রাউটার। router হলো এমন একটি ডিভাইস যেটাকে একটি কম্পিউটার নেটওয়ার্ক অন্য একটি কম্পিউটার নেটওয়ার্ক এর সাথে কানেক্ট করে।

মনে রাখবেন, router এর মাধ্যমে ইন্টারনেট ডাটা অন্যান্য কম্পিউটার গুলোতে প্রদান করার ক্ষেত্রে আগে রাউটারটিকে একটি মডেম (modem) এর সাথে সংযুক্ত করতে হবে। কারণ, মডেম এর সাহায্যে রাউটারটি ইন্টারনেট ডাটা গ্রহণ করতে পারবে।

আশাকরি, সহজে বুঝতে পারছেন router কি (about of router in bangla) সেই সম্পর্কে বুঝতে পারছেন।

রাউটার কত প্রকার?

আসলে বিভিন্ন প্রকারের রাউটার রয়েছে। আমি নিচে বর্তমানে জনপ্রিয় কিছু রাউটারের প্রকার গুলোর বিষয়ে বলেছি।

  1. Broadband routers (Wired routers
  2. Wireless routers (WiFi routers)
  3. Inter provider border routers
  4. Edge routers
  5. Core routers

রাউটার ব্যবহারের নিয়ম

আমরা অফিসে বা ঘরে রাউটার ব্যবহার করার প্রধান উদ্দেশ্য হলো IPS থেকে গ্রহণ করা ইন্টারনেট কানেকশন বিভিন্ন আলদা আলদা কম্পিউটার ডিভাইস গুলোর মাধ্যমে শেয়ার করার জন্য।

এখানে একটি মডেম এর মাধ্যমে router এর মাধ্যমে ইন্টারনেট সংযুক্ত করা হয়। এর পরে ইন্টারনেট ডাটা যাতে আলদা আলদা কম্পিউটার, ল্যাপটপ, মোবাইল গুলোতে একসাথে ব্যবহার করা যায়। 

আর এই কাজের জন্য রাউটার ব্যবহার করা হয়। মনে করুন, আপনার দপ্তরে থাকা মূখ্য কম্পিউটারে আপনি modem থেকে সোজা ভাবে Internet ব্যবহার করছেন।

এখন এই মডেম এর মাধ্যমে মাধ্যমে গ্রহণ করা ইন্টারনেট আপনি দপ্তরের অন্যান্য কম্পিউটার, ল্যাপটপ বা মোবাইল গুলোতে কানেক্ট করতে চাচ্ছেন। এক্ষেত্রে আপনাকে ব্যবহার করতে হবে একটি router.

বিভিন্ন ডিভাইস গুলোতে যাতে একটি মাত্র মডেমের সাহায্যে গ্রহণ করা ইন্টারনেট একসাথে গ্রহণ ও ব্যবহার করতে পারে, সে জন্য একটি router কাজে লাগবে।

তাহালে, বন্ধুরা রাউটার কাকে বলে এবং রাউটার ব্যবহারের নিয়ম সম্পর্কে আমরা জানতে পারলাম। চলুন এবার নিচে থেকে জেনে আসি পকেট রাউটার কাকে বলে এর ব্যাপারে।

পকেট রাউটার কি?

সাধারণত পকেট রাউটার গুলোকে পোর্টেবল পকেট ওয়াইফাই রাউটার বলা যেতে পারে। এই ধরনের পকেট ওয়াইফাই রাউটার গুলো সাধারণ WiFi router এর চেয়ে অনেক ছোট হয়।

এটা এতোটা ছোট থাকে যে আপনি নিজের পকেটে করে সকল জায়গায় নিয়ে যেতে পারবেন এবং সেখানে ব্যবহার করতে পারবেন। pocket router গুলোতে portable থাকে। এজন্য এর মাধ্যমে internet সংযোগ করার জন্য WiFi connection এর ব্যবহার করতে হয়।

একটি সাধারণ router কে প্রথম তারের মাধ্যমে মডেমের সাথে সংযুক্ত করতে হয় এবং পরে সেটাকে WiFi এর মাধ্যমে অন্যান্য কম্পিউটার ডিভাইস মডেম থেকে আশা ইন্টারনেট এর সাথে সংযুক্ত হতে পারে।

কিন্ত, pocket router এর ক্ষেত্রে ইন্টারনেট কানেকশন প্রদান করার জন্য এতে একটি সিম (sim) ব্যবহার করতে হয়। আপনি যে কোম্পনির মডেম ব্যবহার করবেন, সেই কোম্পনির সিম (sim) সেখানে লাগানো থাকবে।

এবার যখন আপনি পকেট রাউটারটি চালু করবেন তখন আপনি WiFi connection এর মাধ্যমে একাধিক ডিভাইস গুলোতে ইন্টারনেট ব্যবহার করতে পারবেন।

মনে রাখবেন, pocket router গুলোতে আপনার মোবাইলের মতো চার্জ দিয়ে ব্যবহার করতে হবে। আশাকরি, pocket router কি এর ব্যাপারে বুঝতে পারছেন।

পকেট রাউটার এর সুবিধা গুলো

সত্তি কথা বলতে pocket router এর তেমন কোনো বিশেষ সুবিধা নেই। এটার মাত্র কয়েকটি সুবিধা রয়েছে। যে সুবিধা গুলো আমি নিচে বলে দিচ্ছি।

  • আপনি pocket router সব সময় নিজের পকেটে নিয়ে ঘুরতে পারবেন।
  • যেকোনো জায়গায় router এর মাধ্যমে internet ব্যবহার করতে পারবেন।
  • অন্যান্য রাউটারের তুলনায় এই pocket router গুলো কম দামে পাওয়া যায়।
  • নিজের পার্সোনাল Internet access point থেকে ইন্টারনেট ব্যবহার করলে, আপনার কানেকশন সুরক্ষিত থাকবে।
  • এখানে internet hotspot তৈরি করার জন্য একটি সিম (sim) ব্যবহার করতে হয়।

আজকে আমরা কি শিখলাম

তাহালে, বন্ধুরা আজকে আমরা জানলাম রাউটার কি বা কাকে বলে। এছাড়া আমরা router সম্পর্কে আরো বিস্তরিত তথ্য জেনেছি। আমার লেখা what is router in bangla আর্টিকেলটি কেমন লাগলো সেটা কমেন্টে জানাতে ভুলবেন না।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে