ফেসবুকে ডোমেইন ব্লক হয় কেন এবং কিভাবে আনব্লক করবেন (Facebook domain block)

0
304
ফেসবুকে ডোমেইন ব্লক হয় কেন এবং কিভাবে আনব্লক করবেন (Facebook domain block)
ফেসবুকে ডোমেইন ব্লক হয় কেন এবং কিভাবে আনব্লক করবেন (Facebook domain block)

বন্ধুরা আজকে আমি আপনাকে বলবো কি কারণে ফেসবুকে ডোমেইন ব্লক করে দেয়। এবং কিভাবে ফেসবুকে ডোমেইন আনব্লক করবেন সেই বিষয়ে। আপনি যখন একটি নতুন ওয়েবসাই তৈরি করে আর্টাকেল পাবলিশ করবেন, তখন সেখানে ভিজিটরর্স সংখ্যা খুবই কম থাকবে।

কারণ, নতুন ওয়েবসাইটে প্রথমে ভিজিটরর্স কম আসে। তাছাড়া নতুন ওয়েবসাইট সম্পর্ন ভাবে এসইও (SEO) হতে সময় লাগে। এবং যেকারণে গুগল সার্চ ইঞ্জিন থেকে ট্রাফিক আসে কম। এজন্য ওয়েবসাইটের মালিকগণ তাদের সাইটে ট্রাফিক নিয়ে আসার জন্য আর্টিকেল বা কন্টেন্ট এর লিংক গুলো নানা ভাবে ফেসবুকে শেয়ার করে।

এভাবে নতুন ব্লগারা ফেসবুক থেকে তাদের ব্লগে ভিজিটরর্স নিয়ে আসে। কিন্ত এর একটি সমস্যা ও রয়েছে, যে ফেসবুক প্রায়ই বিভিন্ন কারণে আমাদের ওয়েবসাইটের ডোমেইন লিংক অবরুদ্ধ বা ব্লক করে রাখে। যার ফলে আমরা আর সাইটের লিংক গুলো ফেসবুকে শেয়ার করতে পারি না।

গুগল রেংক পাওয়ার জন্য যে বিষয় গুলো করা যাবে না

আর যদি একবার আপনার ওয়েবসাইটের লিংক ফেসবুক ব্লক করে দেয় তাহালে আপনি ফেসবুকের ভিজিটরর্স গুলো আর পাবেন না যা আপনার সাইটের জন্য ক্ষতিকর।

কেন ফেসবুক ডোমেইন ব্লক করে দেয়?

আসলে ফেসবুকের পলিসির বাইরে আপনি যদি কাজ লিংক শেয়ার করেন তাহালে Facebook domain block করে দিয়ে। চলুন নিচে থেকে জেনে আসি কি কি কারণে ডোমেইন ব্লক হয়।

#১. অতিরিক্ত লিংক শেয়ার করা

কেউ যখন একটি নতুন ওয়েবসাইট তৈরি করে তখন ট্রাফিকের জন্য সাইটের লিংক বিভিন্ন গুরুপে শেয়ার করা হয়। এই শেয়ার করাটা ফেসবুক কৃএিম বুদ্ধিমত্তা আপনার লিংকে স্প্যাম ভাবে। এরপরে আপনি যখন অতিরিক্তভাবে লিংক শেয়ার করতে থাকেন তখন ব্লক করে দেওয়া হয়। তবে, এটিই একটি মাএ কারণ না, আরো অনেক কারণ রয়েছে।

#২. ওয়েবসাইটের ক্যাটাগরি

ফেসবুক তাদের সম্প্রদায়ের গাইডলাইন কিছু ধরনের ওয়েবসাইটকে তাদের প্লাটফর্মে শেয়ার করতে দেয় না। এগুলো হলো অনলাইন অর্থোপার্জন, ডেটিং, জুয়া, পর্নোগ্রাফি সাইট গুলো। এখন আপনি যদি এই ধরনের ওয়েসবাইটের লিংক ফেসবুকে জমা দেন তাহালে শতভাগ আপনার ডোমেইন ব্লক হওয়ার সম্ভবনা রয়েছে।

#৩. ওয়েবসাইটে নুল থিম বা স্ক্রিপ ব্যবহার করা

অনেক ব্লগের মালিকগণ তাদের অর্থ সাশ্রয়ের জন্য ব্লগে ম্যালওয়ার্ড থিম বা পিএসপি স্ক্রিপ ব্যবহার করে। যখন আপনি এমনটা করবেন তখন ফেসবুক আপনার ব্লগের ডোমেইন ব্লক করে দিবে। কারণ ফেসবুক কখনো প্রকাশকের ওয়েবসাইটে ম্যালওয়ার বা ভাইরাস থাকার অনুমিত দেয় না।

#৪. ডোমেইনের অতীত রেকর্ড

অনেক সময় এমন ঘটনা হয়ে থাকে যে আপনি যে ডোমেইনটা ব্যবহার করছেন সেটা আগে থেকে অন্য কেউ ব্যবহার করতো। এখন সে নানা ভাবে ফেসবুকে লিংক শেয়ার করার কারণে ফেসবুকে ডোমেনটা ব্লক করা করে দিয়েছিলো। তিনি বছর শেষে আর রিনিউ না করার কারণে ডোমেইনটি আবার আপনি নতুন করে কিনে নেন।

এজন্য সব আপনি যখন ডোমেইন কেনার কথা চিন্তা করবেন তখন অবশ্যই সেই ডোমেনটা আগে কেউ ব্যবহার করেছিলো কিনা সেটা চেক করে নিবেন। নিচের লিংকে ক্লিক করে ডোমেইনের অতীত রেকার্ড জেনে নিন।

তাহালে, আশাকরি বুঝতে পারছেন কি কারণে ফেসবুকে ডোমেইন ব্লক করা হয়। এবার জানবো কি করলে ফেসবুকে ডোমেইন ব্লক করবে না।

কি করলে ফেসবুকে ডোমেইন ব্লক করবে না?

ফেসবুকের পলিসির নিদিষ্ট কিছু উপায় বা নিয়ম রয়েছে যেগুলো ফলো করলে ডোমেইন ব্লক (Domain block) হওয়ার সম্ভবনা থাকবে না।

  • আপনার নিজের ওয়েবসাইটের লিংক শেয়ার করবেন।
  • ওয়েবসাইটের জন্য সব সময় টপ লেভেলের ডোমেইন (Top level domain) যেমন .com, .net, .org, .info ব্যবহার করুন।
  • আপনার সাইট যদি ওয়ার্ডপ্রেস হয় তাহালে পেইড হোস্টিং সার্ভার ব্যবহার করুন।
  • আপনার সাইটে এমন কেনো আর্টিকেল বা কন্টেন্ট রাখবেন না যেটা ফেসবুক নিষিদ্ধ রয়েছে যেমন- ফিশিং সাইট।
  • আপনার ডোমেইন ফেসবুকে ভেরিফিকোশন করে নিবেন।
  • আপনার সাইটের লিংক ফেসবুক মেসেজারে বার বার পাঠাবেন না।
  • ওয়েবসাইটের লিংক নিজের পেজ বা আইডিতে শেয়ার করবেন, (অন্যের পেজ বা আইডি নয়)।
  • যত সম্ভাব কম শেয়ার করবেন আপনার সাইটের লিংক। আমরা সব সময় আমাদের ফেসবুক আইডি থেকে বেশি শেয়ার করি। আর সব সময় চেষ্টা করবেন পেজ থেকে সাইটের লিংক শেয়ার করার জন্য এতে ডোমেইন ব্লক হওয়ার সম্ভবনা কম থাকে।
  • দিনে ১০ থেকে ১৫ বারের বেশি লিংক শেয়ার করবেন না এতে স্প্যাম ভাবে।

কিভাবে ফেসবুকে ডোমেইন আনব্লক করার আবেদন করবেন? (Apply Facebook block domain unblock)

আপনি নিচের মাধ্যমটি ব্যবহার করে ফেসবুকে ডোমেইন আনব্লক করতে পারবেন।

প্রথমে ব্লক হওয়া ডোমেনটা ফেসবুকে শেয়ার করুন।

এবার আপনার ব্লক করা ওয়েবসাইটের URL দিন।

এরপরে Let Us Know অপশনে ক্লিক করুন।

এবার আপনার সামনে একটি মেসেজার বক্স চলে আসবে। সেখানে ডোমেইন আনব্লক করার জন্য মেসেস লিখতে হবে। এর জন্য আপনি নিচের মেসেসটা কপি করে শুধু মাএ Website Link পরিবর্তন করে দিবেন।

“Hello Facebook Team,

my web site URL are blocked on Facebook. Recently I got apprehend my web site URL: https://wwwmysite.com has blocked on Facebook and prohibited Pine Tree State to share my web site links over my pages and my timeline. I did not go against your policies. I apologize If I even have broken any Facebook policy by any mistake. It is requested please unblock my web site URL and change its links. Please Unblock My web site URL.

Thank You”

এবার বক্স এ উপরের লেখাটি লিখে SEND বাটুনে ক্লিক করুন। আশাকরি ২৪ ঘন্টার মধ্যে Facebook domain unblock হয়ে যাবে। যদি না হয় তবে এই একই প্রক্রিয়া অনুসারণ করে আরো কয়েক জনকে রিপোর্ট করতে বলুন।

ফেসবুক আনব্লক না করলে কিভাবে ফেসবুকে লিংক শেয়ার করব?

আপনার ডোমেইন যদি ফেসবুক অনব্লক না করে তাহালে আপনি দুইটি মাধ্যমে ফেসবুকে লিংক শেয়ার করতে পারবেন। আমি নিচে দুইটা প্রক্রিয়া বলে দিচ্ছি।

URL short লিংক করে শেয়ার করুন

যে সকল ব্লগাদের ব্লগারের লিংক ব্লক করে দিয়েছে তারা ওয়েবসাইটের লিংক শর্ট বা ছোট করে ফেসবুকে লিংক শেয়ার করে। এখন আপনি ও সেই প্রক্রিয়া অনুসারন করতে পারেন। এজন্য নিচের ধাপ গুলো অনুসারণ করুন।

#১. প্রথমে এই https://bitly.com/ ওয়েবসাইটে যান।

#২. এখানে ওয়বসাইটের লিংক শর্ট (short) করার জন্য একটি বক্স দেখতে পাবেন।

#৩. সেখানে যে লিংকটা শর্ট করতে চান সেই লিংকটা পেষ্ট (past) করুন এবং নিচে থাকা বাটুনে ক্লিক করুন।

#৪. আপনার লিংকটা ছোট হয়ে গেছে এবার আপনি ফেসবুকে শেয়ার করতে পারবেন।

আপনি bitly ওয়েবসাইটের মাধ্যমে লিংক শর্ট করে ফেসবুকে শেয়ার করতে পারবেন কোনো রকমের ঝামেলা ছাড়াই।

Google docs এর মাধ্যমে ফেসবুকে ব্লক লিংক শেয়ার করুন

আপনি ব্লক হওয়া ব্লগের লিংক ফেসবুকে শেয়ার করতে পারবেন google docs এর মাধ্যমে। এর জন্য নিচের প্রক্রিয়া গুলো অনুসারণ করুন।

#১. প্রথমে যেতে https://docs.google.com এই লিংকে।

#২. এবার আপনি blank এ ক্লিক করুন।

#৩. এবার আপনি একটি পোষ্ট তৈরি করুন মানে যে লিংকটা ফেসবুকে শেয়ার করতে চান সেটার টাইটেল লিখুন।

#৪. এবার উপরের লিংক ওপশানটায় ক্লিক করে টাইটালে যুক্ত করে ৩০ সাইজে বোল্ড করুন

#৫. এবার পোষ্টের ছবি বা অন্য কোনো ছবি যুক্ত করে দিন। এবার শেয়ারে ক্লিক করে লিংকটা কপি করে দিন। যদি সম্ভব হয় তাহালে bitly ওয়েবসাইট থেকে লিংকটা শর্ট করে নিয়ে ফেসবুকে শেয়ার করুন।

আজকে আমরা কি শিখলাম

তাহালে, বন্ধুরা আজকে আমরা শিখলাম ফেসবুকে ডোমেইন ব্লক হয় কেন এবং কিভাবে আনব্লক করতে হয়। আমার লেখা Facebook domain block bangla tutorial যদি আপনার কাছে ভালো লাগে তাহালে কমেন্ট করে জানান এবং শেয়ার করতে ভুলবেন না।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে