Payoneer একাউন্ট খোলার নিয়ম জানুন

4
455
Payoneer একাউন্ট খোলার নিয়ম
Payoneer একাউন্ট খোলার নিয়ম

বন্ধুরা আজকে আমি এই আর্টিকেলের মাধ্যমে বলবো Payoneer একাউন্ট খোলার নিয়ম সম্পর্কে। কারণ, বর্তমানে আমাদের দেশের যুব সমাজ ফ্রিল্যান্সিং কাজ কর্ম হিসাবে বেঁছে নিয়েছে। এই ফ্রিল্যান্সিং কাজ করতে হয় দেশ বিদেশের বিভিন্ন ক্লায়েন্ট এর সঙ্গে।

যার ফলে ক্লায়েন্টের সাথে অর্থ আদার প্রদার করার জন্য ইন্টারন্যাশনাল একটা পেমেন্ট গেটওয়ের প্রয়োজন হয়। এখন আপনি যদি এই কাজের সাথে জড়িত হয়ে দেশ বিদেশ থেকে টাকা সেন্ড বা রিসিভ করতে চান, তাহালে এই পেওনিয়ার একাউন্ট খোলার নিয়ম জানা জরুরি।

কারণ, Payoneer account বা Payoneer MasterCard এর মাধ্যমে আপনি খুব সহজে দেশ বিদেশের বিভিন্ন জায়গায় সহজে অর্থ আদান প্রদান করতে পারবেন।

এছাড়া আপনি হয়তো পেপাল, স্কিল, পেওনিয়ার এর নাম শুনেছেন? এ পেমেন্ট মেথড গুলো সারা বিশ্বে সব থেকে বেশি পরিমানে ব্যবহার করা হয়। যেমন, আমাদের বাংলাদেশে ব্যবহার করা হয় বিকাশ, রকেট, নগদ। ঠিক এই ভাবে পেওনিয়ার থেকে আপনি $ ডলার বা ইউরো নিজের দেশের যেকোনো ব্যাংকে নিতে পারবেন।

বর্তমানে ইন্টারন্যাশনাল টাকা আদার প্রদার করার জন্য আমাদের দেশে অনেক গুলো পেমেন্ট মেথড চালু রয়েছে। এর মধ্যে সব থেকে বেশি ব্যবহার করা হয় Payoneer. আর আমাদের পাশের দেশ ভারতেও অনেক বেশি পরিমানে ব্যবহার করা হয় পেওনিয়ার একাউন্ট ও পেপাল একাউন্ট।

এর আগে আমি এই ব্লগে পেপাল একাউন্ট এবং স্কিল একাউন্ট লোখার নিময় সম্পর্কে আলোচনা করেছি। আর আজকের এই আর্টিকেলে বলবো Payoneer একাউন্ট খোলার নিয়ম সম্পর্কে।

Payoneer একাউন্ট কোন খুলবেন?

ফ্রিল্যান্সিং ওয়েবসাইটে এমন অনেক ক্লায়েন্ট বা কোম্পানি রয়েছে, যারা ফ্রিল্যন্সারদের শুধুমাত্র পেওনিয়ার এর মাধ্যমে পেমেন্ট করে থাকেন।

এই এই প্লাটফার্ম গুলো আপনার একটি Payoneer account থাকা জরুরি। কারণ, ফ্রিল্যান্সিং কাজ করতে হলে পেমেন্ট মেথড হিসাবে একটি একাউন্ট থাকা প্রয়োজন।

তাই আজকে আমি দেখাবো কিভাবে সহজে একটি Payoneer একাউন্ট খুলতে হয়।

Payoneer একাউন্ট খোলার নিয়ম

আপনি যদি একটি পেওনিয়ার একাউন্ট তৈরি করতে চান  তাহালে আপনার কিছু ডকুমেন্ট অবশ্যই থাকতে হবে। আপনি দুই ভাবে একাউন্ট খুলতে পারবেন। একটি হলো Individual account এবং আপরটি হলো Company account.

Individual একাউন্ট খোলার জন্য আপনি যেহেতু বাংলাদেশের নাগরিক সেহেতু আপনার NID Card  এবং ব্যাংক একাউন্ট থাকতে হবে। আর ভারতের নাগরিক হলো PAN Card এবং Bank account থাকতে হবে।

আর আপনি যদি নিজের কোম্পনির নামে Company একাউন্ট খুলতে চান, তাহালে ট্যাক্স ইনফরমেশন বা ট্রেড লাইসেন্স এর প্রয়োজন হবে। এই তথ্য বা ডকুমেন্ট গুলো আপনার যদি থাকে তাহালে খুব সহজে একাউন্ট তৈরি করতে পারবেন।

ধরে নিলাম আপনার কাছে সকল তথ্য কা ডকুমেন্ট গুলো রয়েছে। এবার আপনি গুগলে Payoneer লিখে সার্চ করুন বা সরাসরি Payoneer এর ওয়েবসাইটে ভিজিট করতে পারবেন। পেওনিয়ার ওয়েবসাইটে যেতে এই লিংকে ক্লিক করুন https://www.payoneer.com/

আপনার যদি কম্পিউটার বা ল্যাপটপ না থাকে তাহালে মোবাইল দিয়েও পেওনিয়ার একাউন্ট খুলতে পারবেন। এর জন্য Google Chrome ব্রাউজার ব্যবহার করুন এবং পেওনিয়ার সাইট ওপেন করার পরে ডেস্কটপ সাইট করে নিন। এবার নিচের ধাপ গুলো ফলো করে জানুন, Payoneer একাউন্ট খোলার নিয়ম

ধাপ- ১

পেওনিয়ার একাউন্ট খোলার নিয়ম
পেওনিয়ার একাউন্ট খোলার নিয়ম

পেওনিয়ার এর অফিসিয়ালি ওয়েবসাইটে প্রবেশ করার পরে উপরে ডানদিকে REGISTER বলে একটি অপশন দেখতে পাবেন সেখানে ক্লিক করুন।

ধাপ- ২

পেওনিয়ার একাউন্ট খোলার নিয়ম
পেওনিয়ার একাউন্ট খোলার নিয়ম

REGISTER অপশনে ক্লিক করার পরে Payoneer আপনার কাছ থেকে কিছু বেসিক তথ্য জেনে নিবে। যেমন- আপনি ফ্রিল্যন্সার নাকি অনলাইন সেলার, আপনি কত টাকা লেনদেন মানে দেশে বা দেশের বাহিরে করতে চান, মাসে আনুমানিক কত ডলার লেনদেন করবেন? এই সকল তথ্য গুলো দিয়ে Next অপশনে ক্লিক করুন।

ধাপ- ৩

payonner account register
payonner account register

Next অপশনে ক্লিক করার পরে আপনি REGISTER অপশন দেখতে পারেন। এবার আপনি যদি ব্যাক্তিগত একাউন্ট খুলতে চান তাহালে Individual অপশনে ক্লিক করবেন। আন যদি বিসনেস বা কোম্পনির নামে একাউন্ট খুলতে চান তাহালে Company অপশনে ক্লিক করবেন।

ধাপ- ৪

পেওনিয়ার একাউন্ট খোলার নিয়ম
পেওনিয়ার একাউন্ট খোলার নিয়ম

এবার নিচের অপশন গুলো থেকে First name, Last name,  Email address, Re-enter email address, Date of birth সঠিক ভাবে সিলেক্ট করে NEXT অপশনে ক্লিক করুন।

ধাপ- ৫

পেওনিয়ার একাউন্ট খোলার নিয়ম
পেওনিয়ার একাউন্ট খোলার নিয়ম

NEXT অপশনে ক্লিক করার পরে Contact Details অপশনে আপনার সঠিক নিভুল ঠিকানা দিতে হবে। প্রথমে আপনার দেশ সিলেক্ট করুন। আমি যেহেতু বাংলাদেশী তাই Bangladesh সিলেক্ট করেছি।

এর পরে Address line 1, Address line 2, City/Town, Postal/ZIP code, Mobile number যে মোবাইল নম্বার দিবেন। এবং নিচের Verification code এর পাশে Send code অপশনে ক্লিক করলে আপনার নম্বারে ৬ ডিজিটের কোড চলে আসবে। আপনি কোডটি বক্সে বসিয়ে NEXT অপশনে ক্লিক করুন।

ধাপ- ৬

পেওনিয়ার একাউন্ট খোলার নিয়ম
পেওনিয়ার একাউন্ট খোলার নিয়ম

এবার আপনাকে Security Details অপশন সঠিক ভাবে পূরণ করতে হবে। এখানে Username আপনার ইমেইল দেওয়া থাকবে। এর পরে Enter password, Re-enter password, Security question, Security answer, National ID number এবং শেষে নিচের ক্যাপচা দেখে বক্সে বসিয়ে NEXT অপশনে ক্লিক করুন।

ধাপ- ৭

পেওনিয়ার একাউন্ট খোলার নিয়ম
পেওনিয়ার একাউন্ট খোলার নিয়ম

শেষ ধাপে আপনাকে পেমেন্ট নেওয়া জন্য ব্যাংক একাউন্ট যুক্ত করতে হবে। এবার আপনার Personal account / Business account সেটা সিলেক্ট করুন এবং নিজের Currency সিলেক্ট করুন।

এর পরে Bank Name, Branch Name, Account Holder Name, Account Number দিয়ে I agree to the এই দুইটা অপশনে টিক চিহ্ন দিয়ে SUBMIT অপশনে ক্লিক করুন।

এবার আপনি Congratulation মেসেজ দেখতে পাবেন, মানে আপনার সফল ভাবে পেওনিয়ার একাউন্ট খোলা সম্পর্ন হয়েছে। এবার কয়েক দিনের মধ্যে পেওনিয়ার টিম আপনার একাউন্টটি রিভিউ করে দেখে approved মেইল পাঠিয়ে দিবে। তখন থেকে আপনি লেনদেন করতে পারবেন।

একাউন্টের স্কিন শর্টে আমি আমার পার্সোনাল অনেক তথ্য হাইড করে দিয়েছে। এতে আমার পার্সোনাল তথ্য গুলো সেভ থাকবে।

আজকে আমরা কি শিখলাম

তাহালে বন্ধুরা আজকে আমরা শিখলাম Payoneer একাউন্ট খোলার নিয়ম এর ব্যাপারে। আমার লেখা আর্টিকেলটি যদি আপনি অন্য কোনো দেশ থেকে পড়ে থাকেন তাহালে পেওনিয়ার একাউন্ট খোলার নিয়ম একটু আলদা হতে পারে।

আর্টিকেল সম্পর্কে যদি কোনো প্রশ্ন বা পরামর্শ থাকে তাহালে অবশ্যই কমেন্টে জানাবেন এবং ভালো লাগলে অবশ্যই শেয়ার করবেন।

4 মন্তব্য

  1. ভাই, আমি কুয়েত থাকি । আমার ক্ষেত্রে একাউন্ট পিওনিয়ার খোলার সিস্টেম কি

    • আপনি দেশের আইডি কার্ড দিয়ে একাউন্ট খুলতে পারবেন। বা আপনার পাসফুড দিয়ে একাউন্ট তৈরি করতে পারবেন। দেশ সিলেক্ট করবেন বাংলাদেশ, মোবাইল নম্বার দিবেন বাংলাদেশর, এক কথায় সব কিছু দিবেন বাংলাদেশের

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে