সফটওয়্যার কি? কত প্রকার এবং কিভাবে তৈরি করে

0
441
সফটওয়্যার কি? কত প্রকার এবং কিভাবে তৈরি করে
সফটওয়্যার কি? কত প্রকার এবং কিভাবে তৈরি করে

বন্ধুরা আজকে আমি আপনাদের বলবো সফটওয়্যার কি বা সফটওয়্যার কাকে বলে (What is software) এবং সফটওয়্যার কত প্রকার এই সম্পর্কে সম্পর্ন জ্ঞান দিবো। আমাদের সকলের মধ্যে সফটওয়্যার নিয়ে কিছুটা হলেও জ্ঞান বা ধারণা রয়েছে।

কারণ, বর্তমানে আমরা সবাই স্মার্টফোন, কম্পিউটার, ডেস্কটপ নিয়ে ঘাটা ঘাঁটি করে থাকি। আর তাই প্রতিদিন বিভিন্ন ধরনের সফটওয়্যার বা এপ্লিকেশন আমরা ব্যবহার করছি।

কিন্ত, কেউ যখন আমাদের কাছে জিগেস করে software এর technical definition সম্পর্কে তখন সত্তি কথা বলতে গেলে আমাদের কাছে আর কোনো জবাব থাকে না। কারণ, আমরা টেকনিক্যাল সফটওয়ার কি এর সঠিক সংজ্ঞা অনেকে জানি না।

তাই, আজকের এই আর্টিকেলে আমি আপনাদের বলবো কম্পিউটার সফটওয়্যার এর ব্যাপরে। সফটওয়্যার কি বা সফটওয়্যার কাকে বলে, কত প্রকার এবং কিভাবে তৈরি করা হয় সেই সম্পর্কে বিস্তরিত।

কম্পিউটার হলো একটি ইলেক্ট্রনিক ডিভাইস। যেটার মাধ্যমে বিভিন্ন ধরনের কাজ গুলো একাত্রে সম্পাদন করে। যার ফলে বিভিন্ন ধরনের physical hardware এর প্রয়োজন হয়। যেগুলো আমরা হাতে স্পর্শ করতে পারি এবং চোখে দেখতেও পারি।

এই হার্ডওয়্যার (hardware) গুলোকে যে প্রোগ্রাম (program) ও commands গুলো চালায় তাকে বলা হয় সফটওয়্যার (software). আপনি এখন আমার যে আর্টিকেলটি পড়ছেন সেটাও সফটওয়্যার এর মাধ্যমে। আর এই সফটওয়্যার এর নাম হলো web browser.

এই web browser হলো একটি application software, যার মাধ্যমে কম্পিউটার ডিভাইস গুলোতে ইন্টারনেট ব্রাউজার করার কাজে ব্যবহার করা হয়। তাহালে চলুন এবার নিচে থেকে জেনে আমি কম্পিউটার সফটওয়্যার কাকে বলে?

সফটওয়্যার কি (what is software)

কম্পিউটার সফটওয়্যার বা সফটওয়্যার হলো ডাটা (data) যা কম্পিউটার নির্দেশ এর সংগ্রহীত মিশ্রণে প্রোগ্রাম হিসাবে কম্পিউটারকে যেকোনো ধরনের কাজ করতে নির্দেশ দেয়। কম্পিউটার কি কাজ করবে এবং কিভাবে কাজ করবে এই বিষয়ে কম্পিউটার সফটওয়্যার নির্দেশ করে।

সফটওয়্যারকে কিছু নির্দেশ এর মিশ্রণ এবং সংগঠন বলা যায়। যার মাধ্যমে কম্পিউটারের দ্বারা একটি বিশেষ কাজ করানোর প্রোগ্রাম করা হয়েছে।

যার ফলে, সফটওয়্যারে থাকা নির্দেশ ও প্রোগ্রাম গুলোর মাধ্যমে কম্পিউটার ডিভাইস এর বিভিন্ন হার্ডওয়্যার গুলোকে নিয়ন্ত্রণ করে কম্পিউটারের বিভিন্ন কাজ গুলো প্রোসেস করে।

একটা উদাহরন,

ফটোশপে ফটো এডিট করা, গুগল ক্রোমে ইন্টারনেট ব্রাউজার করা, Ms word এ কিছু লেখা, KM player এ বিভিন্ন ভিডিও দেখা এই প্রতিটা আলদা আলদা সফটওয়্যার গুলো কম্পিউটার বিভিন্ন হার্ডওয়্যার গুলোকে নির্দেশ দেয়। যার ফলে কম্পিউটারের দ্বারা আমরা আউটপুট পাচ্ছি।

কম্পিউটারের জনপ্রিয় কিছু সফটওয়্যার এর নাম হলোঃ

  • Google chrome
  • Photoshop
  • KM player
  • MS office
  • Microsoft office ইত্যাদি।

আশাকরি, সফটওয়্যার কাকে বলে (what is software) সহজে বুঝতে পারছেন।

সফটওয়্যার এর সংজ্ঞা

Software কি আসলে বর্ণনা করে অনেক কঠিক একটি বিষয়। কারণ, এটাকে কম্পিউটারের হার্ডওয়্যার এর মতো একটি সফটওয়্যার যাকে দেখা যায় না বা অনুভাব করা যায় না। আসলে সফটওয়্যার হলো সম্পর্ন রূপে একটি virtual.

সফটওয়্যার হলো একটি সাধারন শব্দ, যার মাধ্যমে বিভিন্ন কম্পিউটার প্রোগ্রাম গুলোকে বর্ণনা করা হয়। আপনার কম্পিউটার বা ল্যাপটপে যদি কোনো একটি কম্পিউটার এপ্লিকেশন বা প্রোগ্রাম ইনস্টল করেছেন, তবে সেটাকে software install করা বুঝায়।

সহজ ভাবে বললে,

Software হলো কিছু কোডিং এর লাইন যেগুলোকে বিশেষ programming language এটাকে একজন programmer দ্বারা লেখা হয়েছে। এই কোডিং (Codding) ও স্পিপিট (scripts) গুলোকে একাত্রে একটি কম্পিউটার প্রোগ্রাম এ রুপান্তিত করা হয়।

আর এই প্রোগ্রাম (program) গুলোকে বলা হয় সফটওয়্যার (software). একটি কম্পিউটারকে ব্যবহারের যোগ্য করে তোলে software বা program.

প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ কি?

programming language হলো এমন একটি কম্পিউটার ভাষা যেটা এক সাথে প্রণীত করে কিছু নির্দেশ তৈরি করে। যার ফলে আমরা কম্পিউটারে বিভিন্ন রকমের আউটপুট পেয়ে যায়।

সহজে ভাবে বললে, প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ হলো এমন কিছু কম্পিউটার ল্যাঙ্গুয়েজ যেগুলোর মাধ্যমে বিভিন্ন কম্পিউটার এপ্লিকেশন এবং সফটওয়্যার তৈরি করা হয়।

এখানে বিভিন্ন ধরনের binary data, scripts, rules, keyword থাকে। এই codes ও scripts গুলোর মাধ্যমে প্রোগ্রাম লেখা হয়ে থাকে। এই লেখা গুলো কম্পিউটার অনেক সহজে বুঝতে পারে এবং নির্দেশ গুলো সম্পর্ন করে।

আর এজন্য প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ ব্যবহার করে একটি সফটওয়্যার তৈরি করা হয়। কিছু প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ হলো, 

  • C
  • C++
  • Java
  • PHP
  • Basic
  • .Net
  • Paython
  • My SQL ইত্যাদি

সফটওয়্যার কেন স্পর্শ করা যায় না বা দেখা যায় না?

মনে রাখবেন, যেকোনো ধরনের সফটওয়্যার আমরা কখনো চোখে দেখতে পায় না বা স্পর্শ করতে পারি না। এটার প্রধান কারণ হলো, যেকোনো সফটওয়্যার code ও computer language দ্বারা তৈরি করা হয়।

তাই এই ধরনের সফটওয়্যার গুলোর কোনো আকার থাকে না। এজন্য যে জিনিসের কোনো শারীরিক আকার বা চেহেরা থাকে না, সেটাকে কিভাবে চোখে দেখবেন বা হাতে স্পর্শ করবেন। 

তবে, কম্পিউটার সফটওয়্যার তৈরি করার সময় যে কোড ব্যবহার করা হয় সেগুলো বিশেষ প্রোগ্রমের সাহায্যে চোখে দেখা সম্ভব। এটা যদি দেখা সম্ভব না হতো তাহালে কখনো কম্পিউটার প্রোগ্রাম তৈরি করা সম্ভব হতো না।

সফটওয়্যার কত প্রকার

বিভিন্ন ধরনের সফটওয়্যার তৈরি করা হয়েছে বিভিন্ন ধরনের কাজের জন্য। আমরা যাতে সহজে বিভিন্ন ধরনের কাজ গুলো সহজে করতে পারি তার জন্য আলদা আলদা ধরনের সফটওয়্যার তৈরি করা হয়েছে।

আপনারা হয়তো প্রতিদিন সকালে ঘুম থেকে উঠার পরে মোবাইল বা কম্পিউটারে বিভিন্ন ধরনের সফটওয়্যার গুলো ব্যবহার করেন। যেমন- Facebook, Twitter, Instagram, WhatsApp, Messenger ইত্যাদি।

আপনি এখন যে আমার লেখা আর্টিকেলটি পড়ছেন, এটা কিন্ত একটি software. যার নাম হলো web browser. মনে রাখবেন, বিভিন্ন ধরনের কাজের সুবিধার জন্য বিভিন্ন ধরনের সফটওয়্যার তৈরি করা হয়েছে।

সফটওয়্যার মূলত দুই প্রকার

  1. সিস্টেম সফটওয়্যার (System Software)
  2. এপ্লিকেশন সসফটওয়্যার (Application Software)

সিস্টেম সফটওয়্যার কি

System Software হলো কম্পিউটারে এমন একটি প্রোগ্রাম যার মাধ্যমে কম্পিউটার হার্ডওয়্যার এবং ব্যবহারকারী এর মধ্যে ইন্টারফেস  তৈরি করে। এমন হতে পারে আপনি বিভিন্ন ভাষা বলতে ও বুঝতে পারেন। যেমন- Bengal, English, Hindi.

কিন্ত, কম্পিউটার এই ভাষা গুলো বুঝে না। কম্পিউটার সিস্টেম কেবল একটা মাত্র ভাষা বুঝে সেটা হলো Binary Language বা Binary codes. মনে করুন, আমি কম্পিউটারে ইংরেজা ভাষা লিখছি কিন্ত কম্পিউটার সেই ভাষা বুঝতে পারছেন না।

তাহালে এখন কি করা যাবে? এক্ষেত্রে প্রয়োজন হবে ইন্টারফেস এর। interface এর সধ্যমে আমাদের ভাষার দেওয়া নির্দেশনাবলী গুলোকে কম্পিউটার মেশিনে বুঝতে পারা ভাষাতে কনভার্ট করে দেয়। যার ফলে কম্পিউটার ভাষা গুলো বুঝে কাজ করতে পারে।

সিস্টেম সফটওয়্যার এর বিশেষ কাজ গুলো হলোঃ

  • সফটওয়্যার এর মাধ্যমে কম্পিউটারের বিভিন্ন হার্ডওয়্যার গুলোকে নিয়ন্ত্রণ করে। 
  • Operating system হলো সব থেকে জরুরি system software, যেটা প্রথমে কম্পিউটারে ইনস্টল করতে হয়।
  • একটি Operating system ছাড়া কম্পিউটার কখনো কাজ করতে পারে না।
  • এপ্লিকেশন সফটওয়্যার এবং হার্ডওয়্যার এর মাঝে ইন্টারফেস বা মধ্যবর্তী হিসাবে কাজ করে।
  • ল্যাঙ্গুয়েজ প্রোসেসিং এর পক্ষে সিস্টেম সফটওয়্যার এর প্রয়োজন, এতে ইংরেজি ভাষাকে নির্দেশাবলী গুলোকে মেশিনের ভাষাতে বুঝাতে পারা ভাষাতে রুপান্তিত করে।

আপনি কম্পিউটারে যত গুলো এপ্লিকেশন ইনস্টল করবেন সেই সব গুলো system software নিয়ন্ত্রণ করে। আপনার কম্পিউটারে যদি সিস্টেম সফটওয়্যার না থাকে, তাহালে আপনি অন্য কোনো এপ্লিকেশন চালাতে পারবেন না।

আপনি যখন নতুন একটি কম্পিউটার কিনবেন তখন system software গুলো যেমন- operating system (OS), language translator গুলোকে ইনস্টল করে দেওয়া হয়।

সিস্টেম সফটওয়্যার কত প্রকার?

কার্যক্ষমতা এর দিক থেকে সিস্টেম সফটওয়্যারকে বিভিন্ন ভাগে ভাগ করা হয়েছে। system software কে দুই (২) ভাগে ভাগ করা হয়েছে। যেমন-

  1. Computer management
  2. Developing software

১. Computer management software

কম্পিউটার ম্যানেজমেন্ট সফটওয়্যার গুলোকে আবার তিন (৩) ভাগে ভাগ করা হয়েছে। যেমন- 

  1. Operating system
  2. Device drivers
  3. System utilities

১. Operating system কাকে বলে

একটি কম্পিউটারকে সম্পর্ন ভাবে নিয়ন্ত্রণ করে operating system software (OS). OS এর দ্বারা ইউজার এবং কম্পিউটার হার্ডওয়্যার এর মাঝে ইন্টারফেস তৈরি করে পরস্পরকে সংযুক্ত করে। Operating system ছাড়া কম্পিউটার কখনো চলতে পারে না।

Operating system এর কিছু উদাহরণ

  • Windows OS
  • Linux
  • Mac OS
  • Ubuntu
  • Android

২. Device drivers

একটি হার্ডওয়্যার এবং সফটওয়্যার এর মাঝে অনুবাদক হিসাবে কাজ করে Device drivers গুলো। Device ব্যবহার করার প্রধান উদ্দেশ্য হলো Device এবং software এর মাঝে অন্তর্বৃতী হিসাবে কাজ করে।

৩. System utilities

কম্পিউটার এর রক্ষণাবেক্ষণ এর ক্ষেত্রে বিভিন্ন System utilities software গুলো ব্যবহার করা হয়। তবে, কিছু System utilities আপনার কম্পিউটারে দেওয়া থাকে।

২. Developing software

কম্পিউটারে থাকা অন্যান্য সফটওয়্যার গুলোকে উন্নয়নের জন্য এই সফটওয়্যার গুলো কাজ করে থাকে। ডেভেলপিং সফটওয়্যারকে চার (৪) ভাগে ভাগ করা হয়েছে। যেমন-

  • Programming language
  • Linker
  • Translator
  • Loader

সিস্টেম সফটওয়্যার এর উদাহরণ

  • Windows OS (windows 7,8.1,10)
  • Mac OS
  • Android
  • Linux
  • Game engines
  • Backup utility software
  • Network management software
  • Anti virus
  • Computer language translators
  • Disk cleaner

এপ্লিকেশন সফটওয়্যার কাকে বলে?

যে সফটওয়্যার গুলো শুধুমাত্র বিশেষ ধরনের নির্দিষ্ট ও সিঙ্গেল কাজ করার জন্য তৈরি করা হয় তাকে এপ্লিকেশন সফটওয়্যার বলে। এটাকে একটি প্রোগ্রম বলা যেতে পারে, যেটাকে end user এর মাধ্যমে ব্যবহার করা হয়।

আসলে বলতে গেলে এই সফটওয়্যার গুলো system software ও নয় আবার programming software ও নয়, এটা একটি application software. যেটাকে সহজ ভাবে আমরা application বা app বলে থাকি।

এপ্লিকেশন সফটওয়্যার এর উদাহরণ

  • Photoshop
  • Media player
  • Internet browser
  • MS office
  • Paint

কিভাবে সফটওয়্যার তৈরি করে?

একটি কম্পিউটার সফটওয়্যার বিভিন্ন ০ এবং ১ সংখ্যা দিয়ে তৈরি করা হয়। এই সংখ্যা গুলোকে বলা হয় binary codes. কম্পিউটার সিস্টেম গুলো কেবল এই binary codes গুলো দিয়ে তৈরি করা নির্দেশ গুলোকে বুঝতে পারে।

একজন ডেভেলপার যখন একটি সফটওয়্যার তৈরি করে তখন বিভিন্ন প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ গুলো ব্যবহার করে। যারা এই প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ গুলো ব্যবহার করে একটি সফটওয়্যার তৈরি করে তাকে সফটওয়্যার ডেভেলপার বা প্রোগ্রামার বলে।

binary codes গুলো বুঝতে পারা অনেক কঠিন ব্যাপার। তাই একজন ডেভেলপার C, C++, PHP, JavaScript, Python ইত্যাদি ব্যবহার করে সফটওয়্যার তৈরি করে।

আপনারা যদি সফটওয়্যার তৈরির কাজ শিখতে চান, তাহালে software development এর কোর্স  করতে হবে। আশাকরি, বুঝতে পারছেন সফটওয়্যার কিভাবে তৈরি করা হয় এ ব্যাপারে।

আজকে আমরা কি শিখলাম

তাহালে বন্ধুরা আজকে আমরা জানলাম সফটওয়্যার কি বা সফটওয়্যার কাকে বলে (what is software) এই সম্পর্কে বিস্তরিত ভাবে।  আমার লেখা আর্টিকেলটি ভালো লাগলে অবশ্যই কমেন্টে জানাবেন।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে