কিভাবে ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েবসাইট ব্যাকআপ নিবেন?

0
128
কিভাবে ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েবসাইট ব্যাকআপ নিবেন
কিভাবে ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েবসাইট ব্যাকআপ নিবেন

কিভাবে ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েবসাইট ব্যাকআপ নিবেন – আপনি যদি বর্তমানে একটি ব্লগ ওয়েবসাইট তৈরি করতে চান তাহালে অবশ্যই WordPress বেঁছে নিবেন। আপনি যদি ওয়ার্ডপ্রেস ব্যবহার করে একটি ব্লগ ওয়েবসাইট তৈরি করা অনেক সহজ।

ঠিক সেই ভাবে অনেক সহজে আপনার সাইটটা হ্যক হয়ে যেতে পারে। এজন্য ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েবসাইটের সিকিউরিটি নিয়ে নিয়ে আমাদের অবশ্যই চিন্তা করাটা জরুরি। যখন ওয়েবসাইটের নিরাপত্তা নিয়ে কথা বলা হয় তখন WordPress website backup এর বিষয়ে ভাবতে হবে। 

আমাদের মধ্যে অনেকে আছেন যারা কিভাবে ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েবসাইট ব্যাকআপ করতে হয় এই বিষয়ে কিছু জানে না বা ভাবে না। মনে রাখবেন, ওয়ার্ডপ্রেস হলো একটি CMS software. এই সফটওয়্যার ব্যবহার করার জন্য আমাদের web hosting server এর প্রয়োজন হয়।

এই ওয়েব হোস্টিং সার্ভারে আমাদের ওয়েবসাইটের সম্পর্ন file, data, database ইত্যাদি গুলো থাকে। এই কারণে আমাদের সম্পর্ন ওয়েবসাইটটি সাংঘাতিক বিপদের মুখে পড়তে পারে। এর প্রধান কারণ হলো ওয়েব হোস্টিং সার্ভার আমাদের নিয়ন্ত্রণে থাকে না।

তাই, ওয়েব হোস্টিং এর সাথে জড়িত এবং অন্যান্য অনেক কিছু সমস্য ভবিষ্যতে আমাদের ওয়েবসাইটে দেখা দিতে পারে।

এই সমস্য গুলো হলো,

  • আপনার ব্যবহার করা হোস্টিং কোম্পানি বন্ধ হয়ে যেতে পারে।
  • যেকোনো সময় হোস্টিং কোম্পনি আপনার ওয়েবসাইট suspend করে দিতে পারে।
  • হোস্টিং সার্ভার হ্যাক হয়ে যেতে পারে।
  • ওয়েবসাইটের ডাটা (data), ফাইল (file) রিমুভ (remove) হয়ে যেতে পারে।
  • সম্পর্ন ওয়েবসাইট হ্যাক হয়ে যেতে পারে।
  • ওয়েবসাইটের files বা database গুলো নষ্ট হয়ে যেতে পারে।

উপরের সমস্য গুলো যদি আপনার ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েবসাইটে হয়ে থাকে তাহালে ওয়েবসাইটটি সম্পর্ন নষ্ট হয়ে যাবে। তখন আপনার ওয়েবসাইট ভালো অবস্থায় ফিরিয়ে আনা অসম্ভব হয়ে যায়। আমি কখনো চাইবো না আপনাদের ওয়েবসাইট ভবিষ্যতে এই ধরনের সমস্যায় পড়ুক।

আপনাদের ওয়েবসাইটকে এই ধরনের সমস্য গুলো থেকে বাঁচিয়ে রাখতে বা সুরক্ষিত রাখতে একটা উপায় রয়েছে। সেটা হলো “সময়ে সময়ে নিজের ওয়েবসাইট ব্যাকআপ নেওয়া”। তাহালে চলুন নিচে থেকে জেনে আসি কিভাবে নিজের ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েবসাইট ব্যাকআপ নিবেন

ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েবসাইট ব্যাকআপ নেওয়া জরুরি কেন?

আমি আগেই বলেছি ভবিষ্যতে আমাদের ওয়েবসাইটে যেকোনো ধরনের সমস্য হতে পারে। তাই আপনার কাছে যদি ওয়েবসাইটের ব্যাকআপ থাকে তাহালে আবার ভালো অবস্থায় ফিরিয়ে আনা সম্ভব।

যখন আমরা ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েবসাইটের ব্যাকআপ করি তখন ওয়েবসাইটের সাথে জড়িত প্রত্যেকটি database, file, theme, post, plugin, media ইত্যাদি আমাদের কম্পিউটারে zip file হিসাবে সেভ করা যায়।

এবার আমাদের ওয়েবসাইট যখন হ্যাক হয়ে যাবে বা অন্যান্য কোনো সমস্য দেখা দেবে তখন backup file টি restore করে দিলে আবার আগের অবস্থায় ওয়েবসাইটটি ফিরে আসবে। এভাবে আপনি যদি ওয়েবসাইটের ব্যাকআপ রাখেন তাহালে আপনার আর কোনো সমস্যার ভয়  থাকবে না।

আবার কোনো সময় যদি ওয়েবসাইটের হোস্টিং সার্ভার বন্ধ হয়ে যায় তাহালে বা হোস্টিং সার্ভার যদি আপনার ওয়েবসাইট সাসপেন্ড করে দেয়, সেক্ষেত্রে আপনার WordPress site এর backup  file আপনাকে সমস্য থেকে বাঁচিয়ে নিতে পারে।

এই ধরনের পরিস্থিতিতে আপনি অন্য ওয়েব হোস্টিং কোম্পানি থেকে হোস্টিং কিনে, সেখানে নিজের ওয়েবসাইটের ব্যাকআপ ফাইল restore করে দিলে ওয়েবসাইটটি আবার চালু হয়ে যাবে। এতে আপনার সাইটের কোনো ক্ষতি হবে না।

আর আপনার কাছে যদি নিজের ওয়েবসাইটের ব্যাকআপ ফাইল না থাকে, সেক্ষেত্রে কোনো কারণে, আপনার হোস্টিং কোম্পানি যদি বন্ধ হয় যায় বা একাউন্ট সাসপেন্ড করে দেয় তাহালে কোনো ভাবে আর ঠিক করতে পারবেন না।

তখন আপনাকে আবার নতুন ডোমেইন হোস্টিং কিনে নতুন করে একটি ওয়েবসাইট বানাতে হবে। আশাকরি, সহজে বুঝতে পারছেন ওয়েবসাইটের ব্যাকআপ নেওয়া কেন জরুরি।

তিনটি মাধ্যমে WordPress সাইট এর backup নিতে পারবেন

  1. WordPress backup plugin এর মাধ্যমে backup
  2. Web hosting company দের মাধ্যমে backup.
  3. Manually ftp এর মাধ্যমে ফাইল ডাউনলোড।

ওয়ার্ডপ্রেস ব্লগ ব্যাকআপ নেওয়ার জন্য উপরে বলা মাধ্যম গুলোর মধ্যে সব থেকে সহজ এবং বেশি ব্যবহার করা মাধ্যম গুলোর মধ্যে WordPress backup plugin এর সাহায্যে ব্যাকআপ নেওয়া হয়। তাহালে, চলুন এই সম্পর্কে বিস্তরিত জেনে নেই।

WordPress backup plugin এর মাধ্যমে backup

WordPress website কিন্ত plugin এর জন্য অনেক বেশি জনপ্রিয় এবং ওয়েবসাইটে বিভিন্ন ধরনের নতুন নতুন function ও feature যুক্ত করার জন্য একটি হলেও প্লাগিন রয়েছে।

এই প্লাগিন গুলোর মধ্যে এমন কিছু সেরা ওয়ার্ডপ্রেস ব্যাকআপ প্লাগিন রয়েছে যেগুলো আপনারা সম্পর্ন ফ্রীতে ব্যবহার করতে পারবেন। আমি সেরা কয়েকটি ওয়ার্ডপ্রেস ব্যাকআপ করার প্লাগিন গুলোর নাম উল্লেখ করছি। যেমন,

  • UpdraftPlus
  • BackWPup
  • Duplicator
  • All-in-one WP Migration

এই চারটি প্লাগিন থেকে সব থেকে সহজে এক ক্লিকে ওয়েবসাইট ব্যাকআপ নেওয়ার প্লাগিন UpdraftPlus এর বিষয়ে আমি আপনাদের সাথে নিচে বিস্তরিত ভাবে বলবো। তাহালে চলুন নিচে থেকে জেনে আসি।

যেভাবে প্লাগিন সেট করবেন?

  • প্রথমে নিজের WordPress dashboard থেকে Add new plugin বাটুনে ক্লিক করুন।
  • এবার উপরে বলা সেরা backup plugin গুলোর মধ্যে যেকোনো একটি search করে install করে active করবেন।
  • তারপরে প্লাগিন এর মধ্যে থেকে backup অপশনে ক্লিক ক্লিক করে সম্পর্ন ওয়েবসাইটটি ব্যাকআপ করে নিতে পারবেন।
  • আপনি আপনার ওয়েবসাইটের backup file গুলো নিজের কম্পিউটার বা গুগল ড্রইভে এ সেভ (save) করে রাখতে পারবেন।

UpdraftPlus Plugin দিয়ে কিভাবে ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েবসাইট ব্যাকআপ নিবেন?

WordPress website backup UpdraftPlus plugin
WordPress website backup UpdraftPlus plugin

আমি নিজে সহ আরো অনেক ব্লগাররা তাদের ব্লগিং ক্যারিয়ারে এই UpdraftPlus backup plugin ব্যবহার করছে। অন্যান্য প্লাগিন গুলোর মধ্যে সব থেকে সেরা ওয়ার্ডপ্রেস ব্যাকআপ প্লাগিন এটি।

কারণ, এই প্লাগিন ব্যবহার করে আপনারা সম্পর্ন  ওয়েবসাইটের file, data, plugin, them, database গুলো অনেক সহজে backup রাখতে পারবেন। এই প্লাগিন এর মাধ্যমে আপনারা backup file গুলো নিজের কম্পিউটার বা গুগল ড্রইভে save করে রাখতে পারবেন।

মনে রাখবেন, এই সম্পর্ন প্রক্রিয়াটি মাত্র একটি মাত্র মাউসের ক্লিকে হয়ে যাবে। Backup বাটুনে ক্লিক করার সাথে সাথে আপনার সম্পর্ন ওয়েবসাইটটি ব্যাকআপ হয়ে যাবে।

আবার যদি কখনো প্রয়োজন হয় তাহালে restore অপশনে ক্লিক করলে সম্পর্ন ওয়েবসাইটটি রিস্টের করে নিতে পারবেন। আবার আপনি চাইলে automation backup সেট করে নিতে পারবেন। এতে আপনার সেট করা সময় হিসাবে প্রত্যেক দিন,সপ্তাহ, মাস হিসাবে নিজে নিজে ব্যাকআপ নিয়ে নিবে।

এই প্লাগিনের সাহায্যে এক হোস্টিং কোম্পানি থেকে অন্যান্য হোস্টিং কোম্পনিতে নিজের সম্পর্ন ওয়েবসাইটটি ট্রান্সফার করে নিয়ে যেতে পারবেন।আপনারা UpdraftPlus প্লাগিন ব্যবহার করে কোনো রকম চিন্তা ছাড়া ব্লগিং করতে পারবেন।

আজকে আমরা কি শিখলাম

তাহালে, বন্ধুরা আজকে আমরা জানলাম কিভাবে ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েবসাইট ব্যাকআপ নিবেন (WordPress website backup) এর ব্যাপারে। আশাকরি আমার লেখা আর্টিকেলটি আপনাদের ভালো লাগছে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে